অর্পিত সম্পত্তি প্রর্ত্যপন আইনের যথাযথ বাস্তবায়নের দাবি

0
13

সরকারের কাছে অবিলম্বে অর্পিত সম্পত্তি প্রর্ত্যপন আইনের যথাযথ বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন হিন্দু-বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত। শনিবার (০৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ হিন্দু ফাউন্ডেশনের ৩৬তম বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি এ দাবি জানান।

নগরীর মোমিন রোডস্থ মৈত্রী ভবন কার্যালয়ে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত বলেন, ‘বৈষম্যমূলক অর্পিত সম্পত্তি আইন বাতিল করে অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পন আইন পাস করার পর দীর্ঘসময় অতিক্রান্ত হয়েছে। ভুক্তভোগিদের পক্ষ থেকে সারা বাংলাদেশে সম্পত্তি প্রর্ত্যপনের জন্য গঠিত ট্রাইব্যুনালের প্রায় এক লক্ষ ষাট হাজার আবেদন হয়েছে। অথচ এখনো পর্যন্ত এসকল আবেদনের নিষ্পত্তি হয়নি। ‘ক’ তালিকাভুক্ত সম্পত্তি প্রত্যর্পন মামলার অগ্রগতি মাত্র ৫ শতাংশ।

বাংলাদেশ হিন্দু ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান দুলাল কান্তি মজুমদার সভাপতিত্ব সভায় গীতা পাঠ করেন অধ্যাপক সচ্চিদানন্দ রায় চৌধুরী। সাধারণ সভায় কার্যবিবরণী পাঠ করেন অ্যাডভোকেট নিতাই প্রসাদ ঘোষ ও শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন বিশ্বজিৎ পালিত। বাংলাদেশ হিন্দু ফাউন্ডেশনের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন মহাসচিব শ্যামল কুমার পালিত।

অধ্যাপক নারায়ণ কান্তি চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় হিন্দু ফাউন্ডেশনের শিক্ষা সচিব অধ্যাপক হারাধন নাগ, অর্থসচিব আশুতোষ সরকার, বিবাহ সচিব অধ্যক্ষ বিজয় লক্ষ্মী দেবী, ত্রাণ-পুনর্বাসন সচিব সুমন কান্তি দে ও ধর্ম-সংস্কৃতি সচিব মতিলাল দেওয়ানজী, অধ্যাপক আনন্দ মোহন রক্ষিত, অধ্যাপক ঋতেন দাশ, প্রকৌশলী পরিমল কান্তি চৌধুরী, দিলীপ কুমার মজুমদার, অ্যাডভোকেট রুবেল পাল, গোবিন্দ প্রসাদ মহাজন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সভায় নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ও ১৪২৫ বাংলার জন্য ৪১ লাখ ৩০ হাজার টাকার প্রস্তাবিত বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়।