আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে নগর ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

0
34

বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা নিমর্মভাবে
রাতের অন্ধকারে অত্যাচার করে হত্যার প্রতিবাদ ও বিচার দাবীতে
কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের পক্ষ হতে
নগর ছাত্রদল নেতা জাফরুল ইসলাম রানার সভাপতিত্বে এবং আলিফ উদ্দিন রুবেলের
সঞ্চালনায় এক বিক্ষোভ মিছিল চটেশ্বরী রোড হতে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক
প্রদক্ষিণ করে প্রবর্তক মোড়ে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে সমাপ্ত
হয়।তার আগে কাজীর দেউডী মোড়ে মিছিল পূর্ব জমায়েতে অর্তকিত হামলা চালায়
সরকারের পেটুয়া পুলিশ বাহিনী এবং মিছিল ছত্রভঙ্গ করে দেয় , এতে কয়েকজন
ছাত্রদল নেতা আহত হয় এবং একজন গ্রেফতার হয়।
পরে চটেশ্বরী মোড়ে গিয়ে পুনরায় জমায়েত হয়ে মিছিল শুরু করা হয়। এতে প্রধান
অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলো নগর ছাত্রদল নেতা সাইফুল আলম স্বপন, প্রধান
বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলো ইফতেখার উদ্দিন নিবলু এবং বিশেষ অতিথি ছিলো
নগর ছাত্রদল নেতা শাহীন হায়াত সহ প্রমুখ ছাত্রনেতৃবৃন্দ।
এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম
খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় প্রহসনের রায়ের মাধ্যমে বন্দি করে মিডনাইট
ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়ে, দেশের জনগণের গনতান্ত্রিক অধিকার ও
বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ যখন সরকার দেশ বিরোধী
চুক্তি করে এবং এই চুক্তির বিরুদ্ধে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ
ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিল তখন সরকাররে তথাকথিত সন্ত্রাসী ছাত্রসংগঠন
ছাত্রলীগ এই মতকে সহ্য করতে না পেরে আবরারের উপর রাতভর পাষবিক নির্যাতন
করে হত্যা করলো। যা বাংলাদেশের যেকোন বিবেকবান মানুষের মনে কষ্ট ও
ক্ষোভের আগুন জ্বালিয়ে দিলো। এই হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ
জানানোর পাশাপাশি অবিলম্বে খুনিদেরকে আইনের আওতায় এনে ফাঁসি এবং ভারতের
সাথে করা অসম চুক্তি বাতিল করতে হবে। বাংলাদেশের সকল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে
অবিলম্বে সহাবস্থান নিশ্চিতসহ সন্ত্রাসী সংগঠন ছাত্রলীগের রাজনীতি বন্ধ
করার দাবী করা হয়। পাশাপাশি বিএনপি চেয়ারপার্সনের দেশনেত্রী বেগম খালেদা
জিয়ার মুক্তি দাবী করা হয়।