ইকুয়েডরের জালে ৬ গোল আর্জেন্টিনার

0
86

দলে নেই লিওনেল মেসি, সার্জিও আগুয়েরো, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার মতো সিনিয়র ফুটবলার। কিন্তু একঝাঁক তরুণ খেলোয়াড় নিয়ে গড়া আর্জেন্টিনা যে কতোটা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে সেটিই দেখা গেল আজ (রোববার)।আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ইকুয়েডরকে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে আর্জেন্টিনা। ইকুয়েডরের বিপক্ষে গত ১৫ বছরে এটি সবচেয়ে বড় জয় তাদের। ২০০৪ সালে কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্টের ম্যাচে ৬-১ গোলের জয় পেয়েছিল আলবিসেলেস্তেরা।

স্পেনের এস্তাদিও ম্যানুয়েল মার্টিনেজ ভালেরো স্টেডিয়ামে ম্যাচের প্রথমার্ধেই ৩-০ গোলে লিড নেয় আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধে আরো ৩ বার প্রতিপক্ষ ইকুয়েডরের জালে বল পাঠায় লিওনেল স্কালোনির দল। প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনার হয়ে গোল করেন লুকাস আলারিও ও লেয়ান্দ্রো পারেদেস। আরেকটি গোল আত্মঘাতি খাত থেকে। দ্বিতীয়ার্ধে একবার করে লক্ষ্যভেদ করেন হের্মান পাজ্জেলা, নিকোলাস ডমিঙ্গুয়েজ ও লুকাস ওকাম্পোস। পাওলো দিবালা ও মার্কাস আকুইনা একটি করে অ্যাসিস্ট করেন।
ইকুয়েডরের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন অ্যাঞ্জেল মিনা।

আগের প্রীতি ম্যাচে জার্মানির বিপক্ষে ২-০ গোলে পিছিয়ে থেকেও ২-২ গোলে ড্র করেছিল আর্জেন্টিনা। ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনার প্রত্যাবর্তনের নায়ক ছিলেন আলারিও আর ওকাম্পোস।

আর্জেন্টিনার পরবর্তী ম্যাচ ১৫ই নভেম্বর ব্রাজিলের বিপক্ষে। তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ওই ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরবেন লিওনেল মেসি। এরপর বাংলাদেশের মাটিতে প্যারাগুয়ের বিপক্ষেও দেখা যেতে পারে মেসিকে। আর্জেন্টিনার কোচ স্কালোনি ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন, আগামী মাসে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন বার্সেলোনা তারকা।