এই আর্জেন্টাইনকে কেনার লড়াইয়ে নেমেছে রিয়াল-বার্সা

0
21

আর্জেন্টিনার ক্লাব রেসিং ছেড়ে ২০১৮ সালের জুনে ইন্টার মিলানে যোগ দেন লওতারো মার্টিনেজ। এর ছয় মাস আগে থেকেই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারের ওপর চোখ রাখছিল রিয়াল মাদ্রিদ। লওতারো নিজেই জানিয়েছিলেন সে কথা, ‘প্রস্তাব অনেক ছিল। ওরাও (রিয়াল মাদ্রিদ) কথা বলতে চেয়েছে।’ এত দিন তাঁর খেলায় চোখ রেখে অবশেষে সরাসরি লড়াইয়ে নামল মাদ্রিদের ক্লাবটি। ইন্টারের হয়ে এ মৌসুমে নিজের পারফরম্যান্স দিয়েই মাদ্রিদকে সরাসরি লড়াইয়ে নামিয়েছেন লওতারো। আর এ লড়াইয়ে রিয়ালের প্রতিপক্ষ তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী—বার্সেলোনা!

লড়াইটা কিসের, তা না বললেও চলে। দুই বছর আগে রেসিং থেকে লওতারোকে ২৫ মিলিয়ন ইউরোয় কিনেছিল ইন্টার। প্রথম মৌসুমে সেভাবে জ্বলে উঠতে না পারলেও এবার খেলছেন দারুণ। এ পর্যন্ত সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৮ ম্যাচে করেছেন ১৬ গোল। গোল বানিয়েছেন আরও ৪টি। লওতারোর এ পারফরম্যান্সই তাঁকে কেনার লড়াইয়ে ইউরোপের শীর্ষ দুই ক্লাবকে মাঠে নামিয়েছে। আক্রমণভাগে দুটি ক্লাবেরই যে বিকল্প স্ট্রাইকার প্রয়োজন।

আগামী ডিসেম্বরেই ৩৩ বছর পূর্ণ করবেন করিম বেনজেমা। সার্বিয়ার তরুণ স্ট্রাইকার লুকা ইয়োভিচ থাকলেও বেনজেমার স্থায়ী বিকল্প এখনই ঠিক করে রাখতে চায় রিয়াল। তাই লওতারোকে উড়িয়ে আনার দৌড়ে আগেভাগে বার্সার নাম উচ্চারিত হলেও শেষ মুহূর্তে যোগ দিয়েছে রিয়ালও। শুধু কি দৌড়, আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ‘টিওয়াইসি স্পোর্টস’ জানিয়েছে, মার্টিনেজকে কেনার দৌড়ে রিয়ালই এগিয়ে।

লওতারোর জন্য ইন্টারের ঠিক করে রাখা রিলিজ ক্লজ মূল্য ১২০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই তাঁকে কিনতে চায় তারা, জানিয়েছে আর্জেন্টাইন ও স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম। রিয়াল শেষ পর্যন্ত এ দামেই তাঁকে কিনলে আর্জেন্টাইন ফুটবলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ দামের দলবদলের রেকর্ড গড়বেন লওতারো। বছরে ১৪ মিলিয়ন ইউরো বেতনে আগামী জুনে ২২ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকারকে কিনতে চায় রিয়াল।

লুইস সুয়ারেজের উত্তরসূরি হিসেবে লওতারোকে বেশ আগে থেকেই পছন্দ বার্সার। ক্যারিয়ারের গোধূলিলগ্নে চলে আসা সুয়ারেজ চোটের কারণে এখন মাঠের বাইরে। উরুগুয়ে তারকা মে মাসের আগে সম্ভবত মাঠে ফিরতে পারবেন না। সুয়ারেজের স্থায়ী বিকল্প হিসেবেই লওতারোকে কেনার চেষ্টা করছে বার্সা। জাতীয় দলে লিওনেল মেসির সঙ্গে দুই বছর ধরে খেলছেন লওতারো। মেসির সঙ্গে তাঁর বোঝাপড়াও বেশ ভালো। লওতারোকে কেনার চেষ্টা করার পেছনে দলের সেরা খেলোয়াড়ের সঙ্গে তাঁর ভালো সম্পর্ককেও বিবেচনায় রেখেছে কাতালান ক্লাবটি।

ইন্টারের সঙ্গে লওতারোর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ফুরোবে ২০২৩ সালের জুনে। স্প্যানিশ দুই ক্লাবের পাশাপাশি ম্যানচেস্টারের দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী (সিটি ও ইউনাইটেড) ক্লাবও কিনতে চায় লওতারোকে। তবে শেষ মুহূর্তে টের পাওয়া যাচ্ছে, রিয়ালের আগ্রহই বেশি। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, লওতারো ২০১৫ সালে রেসিংয়ের মূল দলে খেলার আগেই তাঁকে একবার কেনার চেষ্টা করেছে রিয়াল।

এর পাশাপাশি দক্ষিণ আমেরিকার তরুণ সম্ভাবনাময় খেলোয়াড়দের কেনার অভ্যাসও রিয়ালের জন্য নতুন কিছু নয়। সাম্প্রতিক সময়ে তিন ব্রাজিলিয়ানকে এভাবেই কিনেছে রিয়াল। ভিনিসিয়ুস ও রদ্রিগো ১৮ বছর পূর্ণ করার আগেই যোগ দিয়েছেন রিয়ালে। গত মাসে ফ্লামেঙ্গো থেকে ১৮ বছর বয়সী রেইনিয়েরকেও কিনেছে তারা।