কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা বাস পরিষেবা আবারও শুরু

0
50

কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা সরাসরি যাত্রাবাহী বাস পরিষেবা আবারও শুরু হয়ছে। টেন্ডার সংক্রান্ত জটিলতার জন্য বেশ কিছুদিন বন্ধ ছিল এই পরিষেবা। 

বুধবার (১৪ আগস্ট) থেকে কলকাতার করুণাময়ী থেকে এই বাস যাত্রা শুরু করে এবং সপ্তাহে তিনদিন ঢাকা হয়ে আগরতলা পৌঁছাবে বাসটি। একইভাবে আগরতলা থেকেও একটি বাস ছাড়বে। যেটি ঢাকা হয়ে পৌঁছবে কলকাতায়। দ্বিতীয় পর্যায়ে চালু হওয়া এই আন্তর্জাতিক বাস পরিষেবা এখন থেকে নিয়মিত ভাবে পরিচালনা করা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

শ্যামলী যাত্রী পরিবহন (ভারত) এর কর্ণধার অবীণ ঘোষ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেছেন, ভাড়া আগের মতোই রাখা হয়েছে। ভাড়া বাড়ানোর কোনও পরিকল্পনাও নেই তাদের। যেহেতু একটা অসুস্থ প্রতিযোগিতার কারণে এই পরিষেবা অনিয়মিত হয়ে গিয়েছিল। তাই যাত্রীদের আস্থা ফেরাতে আগে পরিষেবার ওপর জোর দিতে চান তারা।

তিনি জানান, প্রশাসনিক জটিলতা কেটে যাওয়ায় গত ৬ আগষ্ট ভারত সরকার নতুনভাবে তার সংস্থাকে আবার পরিষেবা পরিচালনা করার অনুমোদন দিয়েছে। এর জন্য তিনি কৃতজ্ঞ।

তিনি আরো বলেন, বুধবার সকাল ৮টায় ছাড়বে বাসটি। সপ্তাহের সোম-বুধ-শুক্র এই তিনদিন চলবে বাসটি। ওই বাসটি ঢাকা হয়ে পরের দিন সকাল ৮টায় আগরতলায় পৌঁছাবে। আগরতলা থেকে যে বাসটি রওনা হবে সেটা বিকাল ৪টায় ছাড়বে। ঢাকায় পৌঁছবে রাত ৯ টায় এবং পরের দিন দুপুরে পৌঁছবে কলকাতায়।

ভাড়ার কথা বলতে গিয়ে অবণী ঘোষ জানান, ২০১৫ সালের যে ভাড়া দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল এই পরিষেবা সেটাই রাখা হয়েছে। কলকাতা থেকে আগরতলায় যেতে ভারতীয় টাকায় দিতে হবে ১৭০০ রুপি। এবং কলকাতা থেকে ওই বাসে ঢাকা পর্যন্ত দিতে হবে ১৪০০ রুপি।

২০১৫ সালে ৬ জুন কলকাতা-ঢাকা-আগরতলায় বাসের যৌথ উদ্বোধন করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভিডিও কনফারেন্স যুক্ত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা ছাড়াও ভারত-বাংলাদেশ বিশেষ করে প্রতিবেশী পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যে আরো তিনটি রুটে আন্তর্জাতিক বাস পরিষেবা অব্যহত রয়েছে।