কারমানের পুরস্কার বাতিলের প্রচারণায় নেমেছে এডব্লিউএফ

mirza imtiaz প্রকাশ:| সোমবার, ৬ মে , ২০১৯ সময় ০৬:০৩ অপরাহ্ণ

নোবেলজয়ী ইয়েমেনি মানবাধিকারকর্মী তাওয়াক্কোক কারমানের নোবেল পুরস্কার বাতিল করার প্রচারণায় নেমেছে আরব উইমেন ফাউন্ডেশন (এডব্লিউএফ)। রোববার (৫ই মে) এক ঘোষণায় একথা জানিয়েছে সংস্থাটি। এ খবর দিয়েছে আরব নিউজ।

খবরে বলা হয়, নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে অসহিংস সংগ্রামে অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১১ সালে নোবেল পুরস্কার পান কারমান। কিন্তু রোববার প্যারিসে এক সংবাদ সম্মেলনে এডব্লিউএফ’র সদস্যরা বলেন, নোবেল পুরস্কার পাওয়ার পর থেকে কারমানের মনোভাবে পরিবর্তন এসেছে। তিনি এখন সন্ত্রাসবাদের সমর্থনকারীতে পরিণত হয়েছেন।

এডব্লিউএফ’র সাধারণ সম্পাদক ও কারমান-বিরোধী প্রচারণার প্রধান মোহাম্মদ আল-দিলাইমি বলেন, তারা প্রচারণাটির অংশ হিসেবে বিভিন্ন কার্যক্রমের আয়োজন করবেন। এর মধ্যে রয়েছে জেনেভা, লন্ডন, প্যারিস, ওয়াশিংটন ও আরব দেশগুলোসহ বিভিন্ন দেশের রাজধানীতে সভা, সেমিনার, সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন। এছাড়া, তারা এ বিষয়ে আলোচনা করতে বেশ কয়েকজন নোবেল পুরস্কারজয়ীদের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন।
আল-দিলাইমি বলেন, আমরা সন্ত্রাসবাদে কারমাণের ভূমিকা ফাঁস করবো। এসব কার্যক্রম মর্যাদাপূর্ণ এই পুরস্কারের নিয়মনীতি বিরোধী।

তিনি জানান, যেকোনো নোবেলজয়ীর জন্য তার নিজ দেশের বিরুদ্ধে যাওয়া একটি নজীরবিহীন কাজ। অথচ কারমান তেমনটাই করেছেন। নিজ দেশ ও আরব বিশ্ব থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন।
এডব্লিউএফ’র সাধারণ সম্পাদক বলেন, কারমান সাধারণ জনগণের মাঝে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন ও গণমাধ্যম ব্যবহার করে আরব দেশগুলোকে অস্থিতিশীল করে তোলার চেষ্টা করছেন।

দিলাইমি জানান, তারা আগামী মাসে মিসরের রাজধানী কাইরোতে একটি সম্মেলনের আয়োজন করবেন। তাতে উপস্থিত থাকবেন আরব বিশ্বের গণমাধ্যম, রাজনীতি, আইন, শিল্প ও সংস্কৃতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বরা। তাতে কারমানের অগ্রহণযোগ্য কাজকর্ম ফাঁস করা হবে। এছাড়া, কারমান কীভাবে সন্ত্রাসবাদে জড়িত দেশ ও সংগঠনগুলোর সমর্থন করেন তাও ব্যাখ্যা করা হবে।

দিলাইমি জানান, সন্ত্রাসবাদে জড়িত ওইসব দেশ ও সংগঠন কারমানকে তার নোবেলজয়ী স্ট্যাটাস ব্যবহার করে শান্তিপ্রিয় আরববাসীদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ও বিদ্বেষ ছড়াতে টিভি চ্যানেল, আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্মসহ সকল প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহ করে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রচারণা কার্যক্রমের উদ্দেশ্য হচ্ছে আন্তর্জাতিক জনমত তৈরি করে সুইডেনের নোবেল ফাউন্ডেশন ও অসলোর শান্তি কমিটিকে কারমানের নোবেল পুরস্কার বাতিল করতে উদ্বুদ্ধ করা।