খাগড়াছড়িতে বিজিবি ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, নিহত ৬

0
91

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সঙ্গে বিজিবির সংঘর্ষে এক বিজিবি সদস্যসহ ৬ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের ৪ জন রয়েছে বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার গাজিনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। নিহতরা হলেন- ৪০ বিজিবি খেদাছড়া জোনের সিপাহি শাওন, সাহাব মিয়া (মুছা), মো. আহমেদ আলী (২৮), আলী আকবর। এছাড়া স্বামীর মৃত্যুর খবর শুনে সাহাব মিয়ার স্ত্রী মঞ্জু বেগম স্ট্রোক করে মারা যান। এদিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে গুলিবিদ্ধ দুজনের মধ্যে মো. মফিজ মিয়া মারা গেছেন। আর মো. হানিফ সহ আরও ১ জন আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন।
স্থানীয়দের দাবি- বিজিবির গুলিতেই গ্রামবাসী ৪ জন, ১ জন বিজিবি সদস্য এবং স্ট্রোক সহ ৬ জন মারা গেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাগান মালিক সাহাব মিয়া সকালে তার নিজের বাগান থেকে বেশকিছু গাছ কাটেন। গাছগুলো গাড়িযোগে নেয়ার সময় গাছগুলো অবৈধ দাবি করে বিজিবি সদস্যরা জব্দ করে তাদের হেফাজতে নিতে চায়। একপর্যায়ে পুরো এলাকাবাসী সমবেত হয়ে বিজিবি সদস্যদের প্রতিহত করার চেষ্টা করলে এলাকাবাসীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় বিজিবি সদস্যরা জড়ো হওয়া লোকদের নিয়ন্ত্রণে গুলিবর্ষণ করলে ঘটনাস্থলেই বিজিবি সদস্য শাওন, বাগান মালিক সাহাব মিয়া প্রকাশ মুছা (৫৭), সাহাব মিয়ার ছেলে আহম্মদ আলী, স্থানীয় গ্রামবাসী মো. আলী আকবর নিহত হয়। নিজের স্বামী ও সন্তানের মৃত্যু সংবাদ শুনে সাহাব মিয়ার স্ত্রী রঞ্জু বেগম স্ট্রোক করে মারা যান।

মাটিরাঙ্গা পৌর মেয়র সামছুল হক ৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে মানবজমিনকে বলেন, কোন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বা কোন মাদক কারবারি জন্য নয়। সামান্য একটি কাঁঠাল গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে অনাকাক্সিক্ষত ও হৃদয় বিদারক ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একটি কাঁঠাল গাছের জন্য নিরপরাধ ব্যক্তিদের জীবন দিতে হলো যা খুবই দুঃখজনক। তবে এ ঘটনায় বিজিবির পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস ও পুলিশ সুপার মো. আব্দুল আজিজসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকতারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়ে এলাকাবাসীকে শান্ত থাকার আহ্বান জানান। জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে এ ঘটনায় আমরা ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছি।

 

বাগানের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বিজিবির বাধার মুখে সৃষ্ট কথা কাটাকাটির সূত্র ধরে এ সহিংসতা ঘটে বলে পুলিশের একটি সূত্রটি স্বীকার করেছেন।
পুলিশসহ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে রয়েছেন। মাটিরাঙ্গা থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২ জনকে আটক করেছে বলে জানা গেছে।