চকবাজারে টেম্পু শ্রমিক নেতা হাবিবের উপর হামলা প্রতিবাদে বিক্ষোভ

0
13

হামলাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিতে হবে
অন্যতায় কোরবানীর পর বৃহত্তর চট্টগ্রামে কর্মসূচী দেওয়ার হবে

চট্টগ্রাম নগরীতে অটোটেম্পু শ্রমিকদের কাছ থেকে চাঁদা নেওয়াকে কেন্দ্র করে আবারও পরিবহন শ্রমিকরা উত্তপ্ত হতে পারে। গত ১৬ আগষ্ট চকবাজার-২নং গেইট সড়কে চলাচলরত অটোটেম্পু শ্রমিক নেতা হাবিবের উপর হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে অটোরিকশা ও অটোটেম্পু শ্রমিকরা ঐক্যবদ্ধ হতে দেখা গেছে। চট্টগ্রামের চকবাজারে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করেছে শ্রমিকরা।
অভিযোগ করে টেম্পু চালক জসিম উদ্দিন বলেন, ১৬ আগষ্ট সরকারী দলের নাম ভাঙ্গিয়ে চকবাজার এলাকায় টেম্পু চালকদের উপর হামলা করে এবং সাধারণ সম্পাদক হাবিবকে মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা। তারা মোটা অংকের চাঁদা দাবী করলে তা দিতে অস্বীকৃত জানালে তারা অতর্কিত হামলা করে হাবিবের উপর। এতে তিনি গুরুত্বর আহত হন।
উক্ত ঘটনার জের ধরে শ্রমিকরা আজ ১৮ আগষ্ট শনিবার সকাল ১১টায় চকবাজার, কাতালগঞ্জ, গোলজার মোড়সহ গুরুত্বপূর্ণ সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে এবং অলি খাঁ মসজিদ চত্তরে এক সমাবেশ অটোরিকশা-অটোটেম্পু শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মো: সোলায়মানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, ওমর ফারুক, শহিদুল ইসলাম, কামাল ভান্ডারী, আবুল কালাম, প্রদীপ বড়–য়া, রুবেল, মুহাম্মদ মিয়া, জসিম উদ্দিন, মো: হাবিব প্রমুখ।
সমাবেশ সভাপতির বক্তব্যে মো: সোলায়মান বলেন, যখন তখন পরিবহন শ্রমিকদের উপর নির্যাতন এবং চাঁদাদাবী করে মারধরের ঘটনা আজ নতুন নয়। এই সব সন্ত্রাসীদেরকে চকবাজারে আর কোন আশ্রয় দেয়া হবে না। সন্ত্রাসী যেই হউক না কেন কোন চাঁদাবাজকে আমরা চকবাজার এলাকায় থাকতে দেবো না। তিনি বলেন যারা শ্রমিকদের উপর হামলা করেছে এবং চাঁদাদাবী করেছে তাদেরকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিতে হবে অন্যতায় চট্টগ্রাম শহর নয় পুরো বৃহত্তর চট্টগ্রামের আমরা কর্মসূচী ঘোষণা করতে বাধ্য হবো। তিনি প্রশাসনকে দ্রুত সন্ত্রাসী, চাদাঁবাজদের গ্রেফতার করার জন্য জোর দাবী জানান।