চমেক ছাত্রাবাসে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ

0
37

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ছাত্রাবাসে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) দুপুরে চমেক ছাত্রাবাসে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ছাত্রাবাসের বেশ কয়েকটি কক্ষ ভাঙচুর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে ছাত্রবাসের কক্ষ দখল নিয়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় ছাত্রাবাসের দ্বিতীয় তলায় লাঠিসোঠা, হকিস্টিকসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে শোডাউন দিতে দেখা যায় উভয় পক্ষকে।

প্রায় আধাঘণ্টা ধরে চলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। এ সময় অন্তত ১২টি কক্ষ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এক পক্ষের নেতা অভিজিৎ দাশ বলেন, পরীক্ষা থাকায় সবাই পড়ালেখা করছিল। হঠাৎ করে কোনো কারণ ছাড়াই আমাদের ওপর হামলা চালানো হয়। এ সময় আমাদের ১০-১২টি কক্ষ ভাংচুর করে এবং বই খাতা ছিঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়।

তবে কক্ষগুলো নিজেদের দাবি করে অন্য পক্ষের নেতা ও চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, আনন্দ র‌্যালিতে যাওয়ার কথা ছিল আমাদের সবার। কিন্তু কিছু ছাত্রের পরীক্ষা থাকায় তারা ছাত্রাবাসে অবস্থান করছিল।

তিনি বলেন, এই সময় কয়েকজন ছাত্র নামধারী সন্ত্রাসী হলে ঢুকে বেশ কয়েকটি কক্ষে ভাঙচুর করে এবং ছাত্রদের বের করে দিয়ে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

চকবাজার থানার ওসি (তদন্ত) রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রাবাসে আধিপত্য নিয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে পর্যাপ্ত পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে।