জ্বীন তাড়াতে গরু জবাই

0
8

প্রতীকী
নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার কাঠেরপুল এলাকায় অবস্থিত পলমল নামে একটি গার্মেন্টস কারখানা থেকে জ্বীন তাড়াতে পাঁচটি গরু জবাই করে শ্রমিকদের খাওয়ালেন মালিকপক্ষ।

গত দুদিনে ওই কারখানায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে সাত নারী অস্বাভাবিক আচরণ করতে থাকেন। মালিকপক্ষ বুধবার বাদ মাগরিব কারখানার ভেতরে গরুগুলো জবাই করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করেছেন। এনিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।
শ্রমিকরা জানান, গত দুই দিনে হঠাৎ সাতজন নারী শ্রমিক কর্মরত অবস্থায় কারখানায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের মধ্যে কারো মুখ থেকে লালা পড়তে দেখা যায়। আবার কেউ জ্ঞান হারিয়ে কারখানার ফ্লোরে পড়ে ছিলেন।
এছাড়া কাউকে আবার হাত-পা শক্ত করে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এরপর তাদের উদ্ধার করতে গেলে তারা অস্বাভাবিক আচরণ করতে থাকেন। অসুস্থদের মধ্যে কেউ কেউ বলেন, পাঁচটি গরু দে, আর নয়তো বড় ধরনের ক্ষতি হবে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের জেলা শাখার সভাপতি এমএ শাহীন বলেন, গত শনিবার ও মঙ্গলবার দুপুরে কয়েকজন শ্রমিক পলমল গার্মেন্টস কারখানায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। খবর পেয়ে ওই কারখানায় যাই। সেখানে একেকজন শ্রমিক একেক রকম অভিযোগ করেন।
তিনি জানান, শ্রমিকদের কেউ কেউ বলেছেন- পানি পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। আবার কেউ বলেছেন- জ্বীনে ধরে নারী শ্রমিকদের কাছ থেকে পাঁচটি গরু চেয়েছে। যদি মালিক গরুগুলো না দেয় তাহলে বড় ধরনের ক্ষতি হবে।
এই শ্রমিক নেতা বলেন, বিষয়টি রহস্যজনক মনে হলে মালিক পক্ষের সাথে আলোচনা করি এবং সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানাই। মালিকপক্ষ বিষয়টি গুরুত্বের সাথে সমাধানের চেষ্টা করেছেন।
কারখানার জেনারেল ম্যানেজার আরিফ হোসেন জানান, আমাদের কারখানায় ১১শ’ শ্রমিক আছেন। হঠাৎ শ্রমিকদের মধ্যে সাতজন নারী শ্রমিক কর্মরত অবস্থায় অসুস্থ হয়ে অস্বাভাবিক আচরণ করতে থাকেন। এতে অন্যান্য শ্রমিকদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়ায় দুদিন কারখানা ছুটি দেয়া হয়।
তিনি জানান, পরে কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালে কারখানার ভেতরে পাঁচটি গরু জবাই দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সেই সিদ্ধান্ত মতে গরু জবাই দিয়ে মাংস রান্না করা হয়। এরপর বাদ মাগরিব মিলাদ ও দোয়া মাহফিল দিয়ে শ্রমিকদের কারখানার ভেতরে বসিয়ে গরুর মাংস ও খিচুরী রান্না করে খাওয়ানো হয়। এখন সবকিছু স্বাভাবিকভাবে চলছে।