দেশে যত গাড়ি আছে, তত ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই

0
40

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশে যত গাড়ি আছে, তত ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই। অনেকে লাইসেন্স ছাড়া গাড়ী চালাচ্ছেন। ফলে দুর্ঘটনা ঘটছে। তাই এ সমস্যাতে সবার মনোযোগ দেয়া উচিৎ।

শনিবার (১ জুন) বৃহত্তম চট্টগ্রাম পণ্য পরিবহন মালিক ফেডারেশন সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। নগরের পাঁচতারকা হোটেল রেডিসন ব্লু চট্টগ্রাম বে ভিউতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়।

বৃহত্তম চট্টগ্রাম পণ্য পরিবহন মালিক ফেডারেশনের সভাপতি মো. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে গাড়ি বৃদ্ধির পাশাপাশি দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি পরিবহন সেক্টরের লোকজনও দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন। এজন্য দুর্ঘটনা রোধে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত চালক নিয়োগ করতে হবে।

বক্তব্য দেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

‘সরকারের পাশাপাশি পরিবহন মালিক সমিতির পক্ষ থেকে যদি নিদের্শনা দেওয়া হয়, লাইসেন্স ছাড়া কেউ গাড়ি চালাতে পারবে না, তাহলে এ সমস্যা সমাধান সম্ভব।’

মালিকে ফেডারেশনের দাবির প্রেক্ষিতে তথ্যমন্ত্রী বলেন, একটি নয়, চট্টগ্রামে দুটি পরিবহন টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে। ইতোমধ্যে এর কাজ শুরু হয়েছে।

‘দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে বন্দর থেকে পণ্য আনা-নেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি ঠিক না থাকলে অর্থনীতির চাকা সচল থাকবে না। এজন্য সরকার সড়ক যোগাযোগ উন্নয়নে জোর দিচ্ছে।’

গত ১০ বছরের সড়ক নেটওয়ার্কের ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে অনেক সড়কের কাজ শেষ হয়েছে। সম্প্রতি দেশের লাইফ-লাইন খ্যাত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দুটি সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ছাড়া কিছু মহাসড়কের কাজ এখনো চলমান। ফলে পণ্য পরিবহনের সঙ্গে যে ঝামেলা ছিল সেগুলো অনেকটা দূর হয়েছে।

চট্টগ্রাম পণ্য পরিবহন মালিক ফেডারেশন সমিতির ইফতার

‘পায়রা ও মোংলা বন্দরকে ঘিরে ব্যাপক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ওই অঞ্চলের সড়ক যোগাযোগ উন্নয়নে একাধিক প্রকল্প নিয়েছে সরকার।’

পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের রাজনীতি করে বিএনপি-জামাত; এমনটা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দশম সংসদ নির্বাচনের আগে ও পরে পেট্রোল বোমা দিয়ে ঘুমন্ত চালকদের হত্যা করেছে বিএনপি-জামাত, শত শত গাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে।

‘অথচ রাজনীতি হচ্ছে মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য। সমাজ ও দেশের উন্নয়নের জন্য। কিন্তু বিএনপি-জামাত পেট্রোল বোমার মারার রাজনীতি করে। এজন্য তাদেরকে প্রত্যাখান করতে হবে।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের ধারা চলমান রয়েছে। উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে হবে।

উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাহাবুবর রহমান, জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন, পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা প্রমুখ।