নকল ওষুধ বিক্রি বন্ধ করতে হবে

0
64

জীবন রক্ষাকারী পণ্য ওষুধ তৈরির ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সুনাম দিন দিন বাড়ছে। দেশে বর্তমানে নতুন ওষুধ কোম্পানির সংখ্যাও দ্রুত বাড়ছে।

ওষুধ কোম্পানির সংখ্যা বাড়লেও কোনো কোনো কোম্পানির ওষুধের গুণগত মান কমে যাচ্ছে। উদ্বেগের বিষয় হল, নকল ওষুধে ভরে যাচ্ছে অনেক ফার্মেসি। অধিক লাভের আশায় নকল ওষুধ রাখা হচ্ছে কোনো কোনো ফার্মেসিতে।

অবস্থা এমন হয়েছে যে, চেনার কোনো উপায় নেই কোনটি আসল আর কোনটি নকল ওষুধ। এতে প্রতারণার শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

মানহীন ওষুধ খেয়ে জনগণের রোগমুক্তি তো দূরের কথা, নতুন রোগের উৎপত্তি হচ্ছে শরীরে। ভেজাল ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানিগুলো চিহ্নিত করে এদের কঠিন শাস্তির আওতায় আনা জরুরি। এ বিষয়ে কোনোরকম গড়িমসি করা হলে প্রতারণার শিকার হয়ে মানুষ রোগমুক্তির বদলে জটিল রোগে আক্রান্ত হবে। সুতরাং নকল ওষুধ বিক্রি বন্ধ করতে হবে।