নবম জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশন আজ

প্রকাশ:| বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:৫৯ অপরাহ্ণ

jatiya sangsad_জাতীয় সংসদ অধিবেশননবম জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশন আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় শুরু হবে। এটি এ বছরের চতুর্থ অধিবেশন। সংসদের ১৮তম অধিবেশন শেষ হয় গত ১৬ জুলাই।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদূল হামিদ সংবিধানের ৭২ অনুচ্ছেদের ১ দফায় দেয়া ক্ষমতাবলে গত ১৮ আগস্ট অধিবেশেন আহবান করেন।

পঞ্চদশ সংশোধনী পাসের পর সংবিধান অনুযায়ী এ অধিবেশন নবম জাতীয় সংসদের শেষ অধিবেশন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৬ জুন আওয়ামী লীগ সংসদীয় দলের সভায় বলেছেন, আগামী ২৫ অক্টোবর নবম জাতীয় সংসদের শেষ কার্যদিবস হবে। এ হিসেবে সংসদের আসন্ন অধিবেশন বিভিন্ন দিক থেকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বর্তমান সংসদের যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০০৯ সালের ২৫ জানুয়ারি। সে অনুযায়ী ২০১৪ সালের ২৪ জানুয়ারি সংসদের মেয়াদ শেষ হবার কথা। আর বর্তমান সংবিধান অনুযায়ি সংসদের মেয়াদ শেষের আগের তিন মাসের মধ্যে দশম সংসদের নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

এ অধিবেশনে বিরোধী বিএনপি যোগ দেয়ার সম্ভাবনার কথা বিরোধী দলের চিফ হুইপ ইতোমধ্যেই গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, বিএনপির সংসদীয় কমিটির সভায় সংসদে যোগ দেয়া এবং সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

জাতীয় সংসদের গুরুত্বপূর্ণ অধিবেশনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে সংসদ সচিবালয থেকে জানানো হয়েছে। তবে আগামীকাল বিকাল ৪টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্ব অনুষ্ঠেয় সংসদ কার্যউপদেষ্টা কমিটির সভায় অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যক্রম চূড়ান্ত করা হবে।

সচিবালয়ের আইন শাখা থেকে জানানো হয়, ১৯তম অধিবেশনের জন্য শাখায় জমাকৃত পুরানো ১৩টি বিল ছাড়াও নতুন তিনটি বিল জমা পড়েছে। নতুন তিনটি বিলের মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধু মেরিটাইম বিল ২০১৩, পণ্যে পাটজাত মোড়ক ব্যবহার (সংশোধন) বিল ২০১৩ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী বিল ২০১৩। এসব বিল ছাড়াও অধিবেশন চলাকালে আরো বেশ কিছু নতুন বিল পাসের জন্য জমা হতে পারে বলে সংসদ সচিবালয় জানিয়েছে। অধিবেশনে প্রশ্ন-উত্তর ছাড়া অনেক জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হতে পারে ।

এদিকে নবম জাতীয় সংসদের ১৮তম ও বাজেট অধিবেশন গত ৩ জুন শুরু হয়ে ১৬ জুলাই শেষ হয়। এ অধিবেশনে বিরোধী দল দীর্ঘ অনুপস্থিতির অবসান ঘটিয়ে সংসদে যোগ দেয়। ওই অধিবেশনে চলতি অর্থ বছরের বাজেট পেশ ও পাস করা হয়।

নবম জাতীয় সংসদের এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ১৮টি অধিবেশনে মোট ৩৯৪টি কার্যদিবসের মধ্যে বিরোধী দল ৭৫ কার্য দিবস উপস্থিত ছিল।

এদিকে গত ১৬ জুলাই শেষ হওয়া সংসদের চলতি অধিবেশনের মোট ২৪ কার্যদিবসের মধ্যে ১৫ কার্যদিবসে ৬১টি ঘণ্টা ১৩ মিনিট বাজেটের ওপর আলোচনা হয়েছে। এর মধ্যে মূল বাজেটের ওপর ৫৬ ঘণ্টা ২২ মিনিট, সম্পূরক বাজেটের ওপর ৪ ঘণ্টা ২১ মিনিট আলোচনা হয়। বাজেট আলোচনায় মোট ২১৮ জন সংসদ সদস্য অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া এ অধিবেশনে ১২টি বিল পাসের পাশাপাশি প্রশ্নোত্তর, ৭১, ৭১(ক) বিধিসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু নিয়ে সংসদে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।