নালা-খালে ময়লা আবর্জনা ফেলবেন না

0
13

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীর ১০০ দিনের অগ্রাধিকার কর্মসূচি মশকনিধন,নালা-নর্দমা থেকে ময়লা আবর্জনা অপসারণের মাধ্যমে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কর্মসূচি অনুসারে ১৭ নং পশ্চিম বাকলিয়া ওয়ার্ডেও কাউন্সিলর শহিদুল আলমের নেতৃত্বে পরিচ্ছন্নতা অভিযান -মশকনিধন কার্যক্রম চলমান আছে। গতকাল সোমবার সকালে তিনি ডিসি রোডের শিশু কবরস্থান ও ফেজারাম পাড়া (জেলে পল্লী) এলাকায় মশার ওষুধ ছিটানোর পাশাপাশি নালা-নর্দমা থেকে ময়লা আবর্জনা অপসারণ ও পরিস্কার কার্যক্রম চালানো হয়। পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা চালানোকালে কাউন্সিলর শহিদ বলেন,পশ্চিম বাকলিয়া ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা। এখানে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের বসবাস। তিনি ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আপনার ময়লা-আবর্জনা নির্দিষ্ট ডাস্টবিনে ফেলুন বা ডোর টু ডোরে নিয়োজিত পরিচ্ছন্ন সেবকদের হাতে দিন। কোন অবস্থাতেই নালা-খালে পলিথিন ও গৃহস্থালী বর্জ্য ফেলবেন না। এতে পানি চলঅচল বাধাপ্রাপ্ত হবে। এ ব্যাপারে ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের সহযোগিতা ও পরামর্শ কামনা করছি। পরে তিনি ফগার মেশিনের সাহায্যে মশার ওষুধ স্প্রে ও লার্ভা ধ্বংসে নালায় এডাল্টিসাইট ছিটান।
এসময় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মো.ইদ্রিস কোম্পানী, মো. রফিক মেম্বার,মুজিবুর রহমান, কামাল আহমেদ, আব্দুল হাকিম, পেয়ার আহমেদ , মহানগর যুবলীগের সদস্য হোসেন সরোয়ার্দি, ওয়ার্ড সেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক সাহেদ মুরাদ সাকু, আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন,জাহাঙ্গীর আলম,ইব্রাহীম সওদাগর, আফজাল হোসেন সৈয়দ আহমেদ মোস্তাফা হেলাল,জাফর আহমেদ, মো.খোকন, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা নাজিম দেওয়ান, শ্রমিকলীগ নেতা মানিক রাজ প্রমুখ কাউন্সিলর শহিদের সাথে ছিলেন।