নেইলপালিশ রিমুভার দিয়ে পুরনো তারিখ তুলে নতুন তারিখ দিতেন পানীয় ডিলার

0
131

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রুহুল আমিন আজ অভিযান চালিয়েছেন এক কোমল পানীয় ডিলারের দোকানে। সেখানে মেয়াদোত্তীর্ণ পানীয়তে নিজেরা নতুন তারিখ বসিয়ে দিয়ে বিক্রি করে দিতেন তারা। এভাবেই ভেজাল পণ্য দেদারছে বিক্রি করছিলেন এই ডিলার।

হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের অদূরেই ডায়মন্ড টাচ কমিউনিটি সেন্টার সংলগ্ন একটি ডিলারের গোডাউনে এসব প্রমানাদি হাতেনাতে ধরেছেন ইউএনও।

অভিযানে তিনি সেখানে তিন ধরনের কোমল পানীয় (কোক,স্প্রাইট) পেয়েছেন-
কিছু পাওয়া গেছে- মেয়াদ আছে (দুই ধরনের মেয়াদ, একটা কোম্পানির দেয়া আরেকটা ডিলারের দেয়া যেটা মেয়াদ শেষ হলে ডিলার পরিবর্তন করে ফেলেন)। কিছু পেয়েছেন- মেয়াদ নাই। আর কিছু পেয়েছেন- মেয়াদ বলতে কিছু নাই(মেয়াদের সীলই নাই)
বিজ্ঞাপন

মেয়াদ দুই ধরনের কেন? প্রশ্ন করলে ইউএনওকে ম্যানেজার জানান- কোম্পানির দেয়া মেয়াদ শেষ হলে এখানে নেইলপালিশ রিমুভার দিয়ে পুরনো তারিখ মুছে নতুন করে দেয়া হয় এজন্য দুই ধরনের মেয়াদ’

ইউএনও রুহুল আমিন বলেন- অনেক বোতল দেখলাম তারিখ বিহীন অনেক পানীয় বোতল পাওয়া গেছে, যা
মাত্র নেইলপালিশ রিমুভার দিয়ে পরিষ্কার করেছে তারা নতুন মেয়াদের তারিখ সীল মারার জন্য।
এমন ভেজাল করা প্রায় আড়াই হাজার লিটার মেয়াদোত্তীর্ণ কোমল পানীয় ড্রেনে ফেলে ধ্বংস করা হয়েছে। মালিক দেশের বাইরে থাকায় তাকে পাওয়া যায়নি।