পশ্চিমা দেশগুলো সৌদির বিরুদ্ধে মিথ্যা রটাচ্ছে: খাসোগির ছেলে

0
53

পশ্চিমা দেশগুলো সৌদি সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা রটাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রয়াত সাংবাদিক জামাল খাসোগির ছেলে সালাগ খাশোগি। সৌদি সরকারের কাছ থেকে অর্থের বিনিময়ে খাসোগি হত্যা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগও অস্বীকার করেছেন তিনি।

খাসোগি হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূর্তির আগের দিন মঙ্গলবার তার বড় ছেলে সালাহ খাসোগি বলেন, সৌদি সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের অর্থনৈতিক মীমাংসা হয়নি। রাজকীয় বিচার বিভাগের প্রতি তার আস্থা আছে বলেও জানান তিনি।

সালাহ খাসোগি টুইটে আরও বলেন, আমার প্রিয় বাবার মৃত্যুর এক বছর পার হয়ে গেছে। এ সময়ের মধ্যে পূর্ব এবং পশ্চিমে আমার দেশের বিভিন্ন শত্রু বাহিনী আমার জন্মভূমি এবং নেতাকে আক্রমণ করার চেষ্টা করেছে।

তিনি আরও বলেন, আমি এসব বরদাশত করব না। সৌদি আরবের বিচার বিভাগের প্রতি আমার অগাধ আস্থা রয়েছে এবং এ ধরনের ঘৃণ্য অপরাধের সাজা দেয়ার মতো সক্ষমতাও রয়েছে।

চলতি বছরের ১ এপ্রিল ওয়াশিংটন পোস্ট এক রিপোর্টে জানায়, সালাহসহ খাসোগি সন্তানেরা সৌদি সরকারের কাছ থেকে কোটি ডলারের বাড়ি এবং মাসিক খোরপোষ হিসেবে অর্থ নিয়েছেন। এ অভিযোগ অস্বীকার করে সালাহ বলেন, পশ্চিমা দেশগুলো সৌদি সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা খবর রটাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, জামাল খাসোগি যেমন ছিলেন তেমন হব। আল্লাহর প্রতি আনুগত্য তারপর আমার দেশ এবং তার নেতৃত্বের কাছে আনুগত্য প্রকাশ করব।

২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কে সৌদি কনস্যুলেটে ঢুকে নিখোঁজ হন। ওই সময়ে সৌদি আরব খাসোগির বিষয়ে তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানায়। তবে তুরস্ক প্রথম থেকেই এটিকে হত্যাকাণ্ড বলে উল্লেখ করে।

পরবর্তী সময়ে জানা যায়, রিয়াদ থেকে পাঠানো ১৫ জনের একটি দল তাকে হত্যা করে। তার লাশ এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীকালে সৌদি সরকার জামাল খাসোগির হত্যার দায় নিয়ে ১১ জনকে বিচারের সম্মুখীন করে। তাদের মধ্যে পাঁচজন মৃত্যুদণ্ডের মুখে রয়েছে।