পেনিনসুলা আয়োজন করেছে সি ফুড ফেস্টিভ্যাল

0
37

ভোজন রসিক বাঙালিকে বিভিন্ন প্রজাতির সামুদ্রিক মাছের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে নগরের তারকা হোটেল পেনিনসুলা আয়োজন করেছে সি ফুড ফেস্টিভ্যাল। এ ফেস্টিভ্যালেই সঙ্গী মাহমুদুল ইসলামকে কথাগুলো বলছিলেন লামিয়া।
বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সি ফুড ফেস্টিভ্যালের উদ্বোধন করেন পেনিনসুলার চেয়ারম্যান মাহবুব উর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক আজাদীর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ওয়াহিদ মালেক, পেনিনসুলার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা তাহসিন এরশাদ, মহা-ব্যবস্থাপক মোস্তাক লুহর প্রমুখ।

উদ্বোধনের প্রথম দিনেই জমজমাট হয়ে উঠে সি ফুড ফেস্টিভ্যাল। লোভনীয় সব সামুদ্রিক মাছের স্বাদ নিতে সেখানে ভিড় করেন দেশ-বিদেশের অতিথিরা।

সুইডেন থেকে চট্টগ্রামে বেড়াতে এসেছেন চিকিৎসক স্টুয়ার্ট অ্যাডামস। ফেস্টিভ্যালে এসে তিনি বলেন, এমনিতেই সামুদ্রিক মাছ খাওয়া উচিত। হৃদপিণ্ড এবং চোখের রোগীদের ক্ষেত্রে সামুদ্রিক মাছ খুব উপকারী।

ছয় দিনব্যাপী এ ফেস্টিভ্যালে থাকছে শতাধিক প্রজাতির সামুদ্রিক মাছ এবং কাঁকড়া। যে কোনো মাছ বা কাঁকড়া পছন্দ করলে- তা সঙ্গে সঙ্গে রাঁধুনিরা রান্না করে পরিবেশন করবেন অতিথিদের। পেনিনসুলার লেগুনা রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এ ফেস্টিভ্যাল চলবে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

পেনিনসুলার অ্যাসিসটেন্ট ম্যানেজার (সেইলস) কামাল হোসেন জানান, ১২০ প্রজাতিরও বেশি সামুদ্রিক মাছ ও কাঁকড়া নিয়ে এবারের সি ফুড ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করেছে পেনিনসুলা কর্তৃপক্ষ। ভোজন রসিক যে কেউ এসব সামুদ্রিক মাছের স্বাদ নিতে পারবেন।

তিনি বলেন, সামুদ্রিক মাছ ছাড়াও, নানা পদের ডেজার্ট, ফল, সালাদ থাকছে ফেস্টিভ্যালে আসা অতিথিদের জন্য। মাত্র ৩ হাজার ৫০০ টাকায় ‘বাই ওয়ান, গেট ওয়ান’ অফারের আওতায় এসব সি ফুড এবং ডেজার্টের স্বাদ নিতে পারবেন অতিথিরা।