ফরহাদাবাদ আমিনিয়া ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার বার্ষিক মাহফিল

0
44

হাটহাজারী ফরহাদাবাদ আমিনিয়া ফয়জুল উলুম মাদ্রাসা ও মুফতিয়ে আজম আল্লামা ফরহাদাবাদী (কু.) এতিমখানা ও হেফজখানার হেফজকৃত ছাত্রদের দস্তারবন্দি উপলক্ষে বার্ষিক মাহফিল ফরহাদাবাদ দরবার শরীফ শাহী ময়দানে পীরে ত্বরিকত আল্লামা শাহসুফী সৈয়দ শফিউল বারী ফরহাদাবাদী (ম.জি.আ.)’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফরহাদাবাদ দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন শাহসুফী আলহাজ্ব সৈয়দ আবু তালেব ফরহাদাবাদী। মুখ্য আলোচক ছিলেন ঢাকা কাদেরীয়া তৈয়্যবিয়া আলিয়া মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আল্লামা আবুল কাশেম মুহাম্মদ ফজলুল হক। আলোচক ছিলেন রানির হাট হামিদিয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক আল্লামা গাজী মুহাম্মদ আবুল কলাম বয়ানী, গুমদন্ডী দরবার শরীফের নায়েবে সাজ্জাদানশীন আল্লামা সৈয়দ আহমদুল হক মাইজভা-ারী, ফরহাদাবাদ দরবার শরীফ জামে মসজিদের খতিব আল্লামা আবুল কাশেম আনোয়ারী। ফরহাদাবাদ দরবার শরীফের আওলাদ ও মোস্তাজেম শাহজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়সাল আবেদীন ফরহাদাবাদীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে বক্তারা বলেন, প্রকৃত দ্বীনি শিক্ষায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের গড়তে পারলে তারা যেমন আদর্শনিষ্ঠ মানুষ হিসেবে বেড়ে উঠবে, তেমনি তাদের দ্বারা দেশ ও জাতিও উপকৃত হবে। ইসলামের উদারবাদী, শান্তি, সম্প্রীতি, উদারতা ও মানবতাবাদি চেতনায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে পারলে জঙ্গিবাদি ত্রাস ও বিভীষিকা থেকে নিস্কৃতি মিলবে। বুনিয়াদি দ্বীনি শিক্ষার পাশাপাশি মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদেরকে আধুনিক যুগোপযোগী জীবন ও কর্মমুখী শিক্ষাও দিতে হবে। না হয় তারা সমাজের মূল ¯্রােত থেকে পিছিয়ে পড়বে। বক্তারা আরও বলেন, ইসলামের নামে জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠার প্রধান কারণ হলো ইসলামের শান্তির দর্শন থেকে বিচ্যুতি। কোনো মুসলমান অন্য কোনো মানুষকে হেয়, বিপদগ্রস্ত ও জুলুমের শিকার করতে পারে না। সকল মানুষকে নিয়ে শান্তিতে বসবাস করাই ইসলামের শিক্ষা।
মাহফিলে অতিথি ও আলোচক ছিলেন আওলাদে ফরহাদাবাদী শাহ্সুফী সৈয়দ মুহাম্মদ আজিজুল হক, শাহসুফী সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান, শাহসুফী সৈয়দ মুহাম্মদ হোসাইন, অধ্যক্ষ আল্লামা খায়রুল বশর হক্কানী, সৈয়দ মুহাম্মদ নুরুল আলম, শাহাজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ কুতুব উদ্দিন, শাহাজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, শাহাজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল আবেদীন আরমান, উপাধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মুহাম্মদ খান সিরাজী, মাওলানা শফিউল বশর নঈমী, মাওলানা শেখ মুহাম্মদ আরিফুর রহমান, মাওলানা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম আশরাফী, মাওলানা সৈয়দ মোফাক্কারুল ইসলাম, মাওলানা হাফেজ খালেদ হোসাইন মির্জাপুরী, মাওলানা মুহাম্মদ জাফর ছাদেক, মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী, মুহাম্মদ শাফায়েতুল ইসলাম সাবাল, মাস্টার মুহাম্মদ এনামুল হক মুহুরী, মুহাম্মদ মিল্লাত হোসেন মুহুরী মেম্বার, মুহাম্মদ উল্লাহ মেম্বার, মাওলানা মুহাম্মদ সিরাজ উদ্দীন, হাফেজ শেখ আহমদ, হাফেজ মুহাম্মদ জাহেদুল আবেদীন, মাওলানা মুহাম্মদ হোসাইন প্রমুখ। বার্ষিক মাহফিলে হেফজখানার হেফজ সমাপন করা ছাত্রদের পাগড়ি পরিয়ে দেন আওলাদে ফরহাদাবাদী ও অতিথিবৃন্দ। সালাত সালাম শেষে দেশ ও বিশ্ববাসীর শান্তি কল্যাণ কামনায় মুনাজাত পরিচালনা করেন পীরে ত্বরিকত আল্লামা শাহ্ছুফী শফিউল বারী ফরহাদাবাদী।