‘সকল মহতী অর্জনে ছাত্রসমাজ অগ্রনী ভূমিকা ছিল’

0
3

ছাত্র সমাজ

মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের সকল মহতী অর্জনে বিপ্লবী ছাত্র সমাজের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৬দফা আন্দোলন, ‘৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, স্বাধীনতা যুদ্ধ এবং স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে ছাত্রসমাজ অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। তাই এই ছাত্রসমাজ মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার অন্যতম প্রধান সহযোগী শক্তি।

তিনি আজ বিকেলে মুক্তিযুদ্ধ বিজয় মেলার ছাত্র স্কোয়ার্ডের এক সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন। তিনি ছাত্র সমাজদের উদ্দেশ্যে বলেন, আজকের ছাত্র নেতাদের শতভাগ ছাত্র হতে হবে। ছাত্র নেতৃত্ব যদি অর্থ বিত্তের দিকে ছুটে তাহলে ভবিষ্যত অন্ধকার হয়ে উঠবে। তিনি ছাত্র নেতাদেরকে মেধাবী ছাত্রদের ছাত্র রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হবার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এক সময় মেধাবী ছাত্ররাই নেতৃত্ব দিয়েছে। তারা এগিয়ে গেলে ছাত্র রাজনীতি পরিচ্ছন্ন হবে। তিনি মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার বিজয় শিখা প্রজ্জ্বলনসহ মেলার সকল কার্যক্রমের ছাত্রসমাজের ব্যাপক অংশগ্রহণের প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান জানান।

সাবেক ছাত্রনেতা মো: সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে ও ইমরান আহমেদ ইমুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, এড. সুনীল কুমার সরকার, কো-চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বদিউল আলম, মহাসচিব মো: ইউনুছ, অমল মিত্র, আজাদ দোভাষ, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, জাহাঙ্গীর চৌধুরী সিইনসি স্পেশাল, পান্টু লাল সাহা, ফরিদ মাহমুদ, মো: হেলাল উদ্দিন, এস.এম. সাঈদ সুমন, শেখ নাসির আহমদ, তালেব আলী, আবদুল খালেক, জয়নাল উদ্দিন জাহেদ, আ.ফ.ম সাইফুদ্দিন, মইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী শিমুল, নোমান চৌধুরী, সুজন বর্মন, হাসানুল আলম চৌধুরী সবুজ, গিয়াস উদ্দিন জেবিন, মিনহাজুল আবেদীন সানি, হাসিবুল হাসান রুম্মান, ফয়সাল বিন নিজাম, কাউসার মোহাম্মদ রাজু, মিজানুর রহমান জনি, ইফতেখারুল আলম রুনু প্রমুখ।