বান্দরবানে ৫দিন ব্যাপী ঐতিহ্যবাহী সাংগ্রাই উৎসব ১২এপ্রিল শুরু

0
4

সাংহাই মেলা
নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান ॥
বান্দরবানে মারমা সম্প্রদায়ের প্রধান সামাজিক উৎসব ঐতিহ্যবাহী “সাংগ্রাই” উৎসব’কে ঘিরে পাঁচদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালা আয়োজন করা হয়েছে। নতুন আশা আজ নব প্রভাতে, শিশু-নারীসহ সকলে থাকুক শান্তিতে, বন্ধ হোক যত সহিংসতা, মৈত্রীময় ¯িœগ্ধ ছোঁয়ায় আসুক শুভ্রতা প্রতিপাদ্য বিষয়ে আগামী ১২ এপ্রিল সাংগ্রাই র‌্যালীর মাধ্যমে উৎসব শুরু হবে। শুক্রবার দুপুরে বান্দরবানে রিস্বংসং রেষ্টুরেন্টে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে সাংগ্রাই উৎসব উদযাপন কমিটি এ ঘোষণা দেন।
উদযাপন কমিটির সভাপতি মংচিংনু মারমা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আয়োজক কমিটির উপদেষ্ঠা
মংহ্নচিং মারমা, সাংগ্রাই উৎসব উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কোকোওয়াই মারমা, সহ-সভাপতি মনমংচিং মারমা’সহ উদযাপন পরিষদের সদস্য-গনমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
উদযাপন কমিটির সভাপতি মংচিংনু মারমা জানান, আগামী ১২ এপ্রিল সকালে স্থানীয় রাজারমাঠ থেকে সাংগ্রাই র‌্যালীর মাধ্যমে উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা আরম্ভ হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি। র‌্যালীতে মারমা, চাকমা, ত্রিপুরা, তঞ্চঙ্গ্যা, ম্রো, চাক, খেয়াং, খুমী, বম, লুসাই, পাঙ্খোয়া সম্প্রদায়ের তরুন-তরুনী এবং শিশু-কিশোর’সহ নারী-পুরুষেরা অংশ গ্রহণ করবে। সাংহাই মেলা ২
র‌্যালী শেষে রাজারমাঠে শিশু-কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগী এবং বসস্ক পূজা অনুষ্ঠিত হবে। পরেরদিন ১৩ এপ্রিল দুপুরে আড়াইটায় উজানী পাড়াস্থ সাঙ্গূ নদী চড়ে অনুষ্ঠিত হবে পবিত্র বুদ্ধমূর্তি ¯œান। রাজগুরু কিয়াং হতে সাড়িবদ্ধভাবে বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুরা (ভান্তেরা) কষ্টি পাথর এবং স্বর্ণের বৌদ্ধ মূর্তি সহকারে পায়ে হেটে নদীর চড়ে গিয়ে সমবেত হবে। সেখানে সম্মলিত প্রার্থণায় বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ এবং তরুন-তরুনী, শিশু-কিশোররা অংশ নেয়। এছাড়া ১৪ এপ্রিল রাতে উজানীপাড়া-মধ্যমপাড়ায় পিঠা তৈরির প্রতিযোগীতা চলবে। পরের দুদিন আগামী ১৫-১৬ এপ্রিল রাজারমাঠে দুদিনব্যাপী জলকেলী বা মৈত্রী পানি বর্ষণ পানি খেলা অনুষ্ঠিত হবে। ঐদুদিন সন্ধ্যায় রাজারমাঠে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। মারমা শিল্পী গোষ্ঠী’সহ জেলার বিভিন্ন স্থানের স্থানীয় শিল্পী গোষ্ঠীগুলো নাচ-গান পরিবেশন করবে।