বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্তে দুই বাংলার ভাষাপ্রেমীদের মিলনমেলা

0
18

বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্তের শূন্যরেখায় আজ শুক্রবার মহান একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে বসেছিল দুই বাংলার ভাষাপ্রেমীদের মিলনমেলা। দিবসটি উপলক্ষে অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন দুই বাংলার মানুষ।

মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আজ সকাল নয়টায় শূন্যরেখার অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান যশোরের জেলা প্রশাসক মোস্তাফিজুর রহমান, পুলিশ সুপার জয়দেব ভদ্র, ২৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের (বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মতিউর রহমান, বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফুল আলম। ভারতের পক্ষে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁও অঞ্চলের বিধায়ক বিশ্বজিত্ দাস, বনগাঁও পৌরসভার মেয়র জোত্স্না আঢ্য, উওর চব্বিশ পরগনা জেলা পরিষদের প্রশাসক রহিমা মণ্ডল প্রমুখ। এরপর তাঁরা সবাই ভাষা শহীদদের স্মরণে হাতে হাত রেখে গেয়ে ওঠেন ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি’ গানটি। পরে দুই দেশের মিষ্টি বিনিময়ে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনকে আরও দৃঢ় করা হয়।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাত শিশু নিহত হওয়ার ঘটনায় এবার বেনাপোল অংশে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়নি। তবে পেট্রোপোলের মঞ্চে অন্যবারের মতো এবারো অনুষ্ঠান হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে একটি প্রতিনিধিদল ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছে।