বোয়ালখালীতে স্কুল জাতীয়করণ ইস্যুতে আ.লীগের রাজনীতি সরগরম

0
1

বোয়ালখালী প্রতিনিধি :
চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ নিয়ে সরগরম হয়ে উঠেছে আওয়ামীলীগের রাজনীতি। চলেছে চট্টগ্রাম-৮ আসনের সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদলের প্রতি বিষোদ্বগার।
উপজেলার গোমদন্ডী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম জাতীয়করণ তালিকায় আসে। পরে তা বাদ দিয়ে কধুরখীল উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এ নিয়ে গোমদন্ডী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ তালিকা থেকে বাদ দেয়ার প্রতিবাদে ও পুনরায় অর্ন্তভুক্তির দাবিতে গত ২৩ অক্টোবর সোমবার থেকে বিভিন্ন ব্যানারে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক, প্রাক্তণ ছাত্র-ছাত্রী, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ সড়ক অবরোধসহ স্মারকলিপি প্রদান, মানববন্ধন, সভা সমাবেশ অব্যাহত রেখেছেন। আন্দোলনকারীরা সাংসদকে দায়ী করে বোয়ালখালীতে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন। তাদের দাবি, সাংসদ বাদলের তীব্র বিরোধীতার ফলে এ বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।
এ নিয়ে কধুরখীল উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদলের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তোলার প্রতিবাদে গত ২৫ অক্টোবর বুধবার কধুরখীল উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ সাংবাদিক সম্মেলন করেন। একই ইস্যুতে গত ২৭ অক্টোবর উপজেলা মুজিব সৈনিকলীগ সাংবাদিক সম্মেলন করেন।
গোমদন্ডী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়কে জাতীয়করণে দাবিতে আন্দোলন স্থবির না হওয়ায় ২৯ অক্টোবর রবিবার সকালে সাংসদের বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ১৪ দলের ব্যানারে উপজেলা জাসদ নেতৃবৃন্দ সমাবেশ করেন। একই সময়ে পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ৬ষ্ঠ দিনে মতো সড়ক অবরোধ করে জাতীয়করণের দাবিতে আন্দোলন করেছে।
দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, বিদ্যালয় জাতীয়করণ ইস্যুতে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠন সমূহ রাজনীতির মাঠ উত্তপ্ত করে রেখেছে। ফলে কোনঠাসা হয়ে পড়েছে স্থানীয় সাংসদ মঈন উদ্দিন খান বাদল অনুসারীরা।
স্থানীয়রা বলেন, সড়ক অবরোধ করে চলমান আন্দোলনের ফলে যানজটে পড়ে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রী সাধারণকে। স্কুলে শিক্ষার্থীরা মাঠে নামায় লেখাপড়ার ব্যাঘাত ঘটছে বলে জানান তারা।
গত ২৮ অক্টোবর বোয়ালখালী পৌরসভার ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিক উপলক্ষে আয়োজিত দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদকে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ একই মঞ্চে বসায় দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এসএম আবুল কালাম অনুসারীদের মনোবল ভেঙ্গে গেছে বলে দাবি উপজেলা আওয়ামীলীগের মোছলেম উদ্দিন অনুসারীদের।
এছাড়া ২০ আগস্ট চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিনের সাথে একাতত্বা প্রকাশ করেন ও স্থানীয় সাংসদের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে বিষোদ্বগার করেছিলেন।