বৌভাত থেকে বর-কনেকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠালেন ইউএনও

0
13

মিরসরাইয়ে ওমান ফেরত এক প্রবাসীর বৌভাত অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় ওই প্রবাসীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

শুক্রবার (২০ মার্চ) ঘটনাস্থল মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাট মেহেদীনগর এলাকায় অভিযান পরিচালানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রুহুল আমিন।

তিনি জানান, ওমান ফেরত ওই প্রবাসী কয়েকদিন আগে দেশে ফেরেন। ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন না মেনে বৃহস্পতিবার গোপনে বিয়ে করেন। শুক্রবার বৌভাতের আয়োজন করা হয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যায়।

ইউএনও জানান, হোম কোয়ারেন্টিন না মেনে বৌভাতের আয়োজন করায় আমরা অনুষ্ঠানটি বন্ধ করে দিয়েছি। ওমান ফেরত ওই প্রবাসীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বর-কনে দুজনকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

ওমান ফেরত এই প্রবাসী ছাড়াও শুক্রবার মিরসরাইয়ে ওমান ফেরত আরেক প্রবাসী এবং ব্রাজিল ফেরত এক প্রবাসীকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয় বলে জানান ইউএনও মো. রুহুল আমিন।

এদিকে বোয়ালখালীতে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ফেরত এক প্রবাসীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আছিয়া খাতুন।

তিনি জানান, হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় এক প্রবাসীকে জরিমানার পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওরশ মাহফিল আয়োজন করায় পশ্চিম সারোয়াতলী মুনার মার শাহী জামে মসজিদ মাহফিল কমিটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এছাড়া বাঁশখালীতে হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় ভারত ফেরত এক ব্যক্তিকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা বেগম।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এজেডএম শরীফ হোসেন জানান, প্রবাস থেকে দেশে ফেরা ব্যক্তিদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। অভিযানের তৃতীয় দিন শক্রবার ৫ জনকে জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রবাসীদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতে অভিযান ছাড়াও উদ্ভুদ পরিস্থিতিতে দ্রব্যমূল্যের দাম স্থিতিশীল রাখতে ডিসি স্যারের নির্দেশে নগর ও জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। অনিয়ম কিংবা বেশি দামে ভোগ্যপণ্য বিক্রির প্রমাণ পেলে জরিমানা করা হচ্ছে।