ভারী বর্ষণের সর্তকতা!

0
93

বাংলাদেশের মৌসুমী বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে আজ (১৩ জুলাই ২০১৯) রাত ৮ টা থেকে পরবর্তী ১২ ঘন্টার মধ্যে চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, সিলেট, রংপুর বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে সর্তকতা দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

অতি ভারী বৃষ্টির কারণে কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধ্বসের সম্ভাবনা রয়েছে।আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশে সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে। দেশের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। ভারি বর্ষণে এরই মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি অঞ্চলে ভূমিধস দেখা দিয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল এবং কাছাকাছি ভারতের সিকিম, পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাঞ্চল, আসাম ও মেঘালয় প্রদেশের বিস্তৃত এলাকায় আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টায় মাঝারি হতে ভারী এবং কোথাও কোথাও অতিভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল সংলগ্ন ভারতের বিহার এবং নেপালে ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে। আগামী ৭২ ঘণ্টায় সকল প্রধান নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে এবং আগামী ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদী সারিয়াকান্দি এবং কাজিপুর পয়েন্ট বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে।

বুয়েটের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউটের প্রফেসর ড. এ কে এম সাইফুল ইসলাম বলেন, দেশের ভেতর ও ভারতে বিভিন্ন অঞ্চলে এখনো বৃষ্টি হচ্ছে। এই পানি নেমে বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে বঙ্গোপসাগরে চলে যাবে। অর্থাৎ যেসব জেলায় বন্যা চলছে সেখানে বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হওয়াসহ নতুন করে কিছু জেলা প্লাবিত হতে পারে। বন্যা ও বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেখে মনে হচ্ছে এবারও বড় বন্যা হতে পারে।