ভেতরে ৩০ পরিবারের সদস্যরা আটকা, বাইরে তালা

0
8

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃ রাউজানে ৬তলা পাকা ভবনের গেইটে তালা লাগিয়ে দেওয়ায় ভবনের মালিক ও ভাড়াটিয়া ৩০টি পরিবারের সদস্যরা ভবনে আটকা পড়েছে । রাউজান পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের আড়াইল্ল্রা পুকুর পাড়ে দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের মালিকানাধীন আবদুল জব্বার সওদাগর ভবনের গেইটে গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুর বারটার সময়ে চিকদাইর এলাকার বাসিন্দ্বা নুর নবী তালা লাগিয়ে দেয় । ভবনের মালিক আবু তালেবের কেয়ারটেকার মোঃ হারুন বলেন, দুপুর বারটার সময়ে নুর নবী তার সাথে আরো কিছু যুবক এসে ভবনের মধ্যে বসবাসকারী ভবনের মালিকের শ্যালিকা রুমি আকতারকে ভবন থেকে বেরা করে দিয়ে ভবনের গেইটে তালা লাগিয়ে দেয় । ভবনের মধ্যে ভবনের মালিকের বসবাসের ঘর সহ ৩০ টি পরিবার ভাড়ায় বসবাস করে । ভবনের গেইটে তালা লাগিয়ে দেওয়ায় ভবনে বনবাসকারী পরিবারের সদস্যরা ভবনের মধ্যে আটকা পড়েছে । আটকা পাড়া পরিবারের লোকজন নিচের তলায় মোঃ হারুনের ফার্নিসারের দোকানের ভেতর দিয়ে ভবন থেকে আসা যাওয়া করছে । ভবনের মালিক আবু তালেব দুবাইতে রয়েছে । ভবনের মালিক আবু তালেবের স্ত্রী রুবি আকতার ও দুবাইতে রয়েছে । ভবনের মালিক আবু তালেবের স্ত্রী রুবি আকতার দুবাই থেকে ফোন করে অভিযোগ করেন নুর নবী কিছু যুবক নিয়ে ভবনের গেইটে তালা লাগিয়ে দেয় । নুর নবী ভবনের মালিকের কাছে ৫৯ লাখ টাকা চাদাঁ দিলে ভবনের গেইট খুলে দেবে বলে ভবনে থাকা ভবনের মালিকের শ্যালিকা রুমি আকতার ও কেয়ারটেকার মোঃ হারুনকে হুমকি দেয় বলে ভবনের মালিক দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের স্ত্রী রুবি আকতার ফোন করে অভিযোগ করেন । এ ঘটনার ব্যাপারে রাউজান থানায় অভিযোগ করার প্রচেষ্টা চলছে বলে দাবী করেন ভবনের মালিকের শ্যালিকা রুমি আকতার । এব্যাপারে রাউজানের চিকদাইর এলাকার বাসিন্দ্বা নুর নবী বলেন, দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের মালিকাধীন অবদুল জব্বার সওদাগর ভবন নির্মান কাজ করা হয় আমার মাধ্যমে । ভবনের নির্মান কাজে শ্রমিকের বেতন, রড, ইট, সিমেন্ট ও বালু বাবদ দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের কাছে আমি ৩৯ লাখ টাকা পাওনা রয়েছি । আমার পাওনা টাকা না দেওয়ায় আমি গত চার মাস পুর্বে রাউজান থানায় অভিযোগ করি । অভিযোগ করার পর চিকদাইর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী ও রাউজান পৌরসভার ২য় প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা বসে সালিশ করে আমাকে ১২ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য আবু তালেবকে বলেন । প্রবাসী আবু তালেব চার মাস হলে ও আমার পাওনা টাকা দেয়নি । সর্বশেষ গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পবিার আমার পাওনা ১২ লাখ টাকা দুবাই প্রবাসী আবু তালেবের শ্যালিকা রুমি আকতার প্রদান করার কথা ছিল । আমার টাকা চাইতে গেলে আমাকে কোন টাকা দেবেনা বলে জবাব দেয় রুমি আকতার । আমার টাকা না দেওয়ায় আমি ভবনের গেইটে তালা লাগিয়ে দিয়েছি । পরে গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টার সময়ে দুবাই থেকে ফোন করে ভবনের মালিক আবু তালেব আমার পাওনা টাকা প্রদান করার কথা বললে আমি ভবনের গেইটের তালা খুলে দিয়েছি ।