মধুতে রয়েছে উচ্চমাত্রার ফ্রক্টোজ ও গ্লুকোজ

0
14

প্রকৃতির ‘মিষ্টি সুধা’ মধুতে রয়েছে উচ্চমাত্রার ফ্রক্টোজ ও গ্লুকোজ যা যকৃতে গ্রাইকোজেনের রিজার্ভ গড়ে তোলে। নিয়মিত মধু খেলে রোগ-বালাই কম হয়। কারণ মধু মানবদেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া মধুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থ, যা দুর্বল চুল ও ত্বকের জন্য মহাউপকারী। যুক্তরাজ্যের ফিমেলফার্স্ট পত্রিকা জানায়, চুল ও ত্বকের দৈনন্দিন সৌন্দর্য রক্ষায় মধু বিশেষ উপকারী। উজ্জ্বল সজীব ত্বকের জন্য মধুর শক্তিশালী অ্যান্টিঅঙ্েিডন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লামেন্টরি খুব কার্যকর। চুুল ও চুলের গোড়া পরিষ্কার রাখতে মধু ‘ন্যাচারাল এজেন্ট’ হিসেবে কাজ করে। চুলের সব অমসৃণতা দূর করে মধু। বেয়াড়া চুলকে সোজা করতে প্রাকৃতিক তেল হিসেবে কাজ করে মধু। সূত্র : ওয়েবসাইট। –