মহিমান্বিত লাইলাতুল বরাত আজ

mirza imtiaz প্রকাশ:| রবিবার, ২১ এপ্রিল , ২০১৯ সময় ০১:৩৭ পূর্বাহ্ণ

পবিত্র লাইলাতুল বরাত আজ। সৌভাগ্যের রজনী। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের জন্য মহিমান্বিত এই রাত
ইবাদত-বন্দেগির। পাপ-পঙ্কিলতা থেকে নিষ্কৃতি লাভের। এ রাতে মহান আল্লাহ্‌তায়ালা তার বান্দাদের প্রতি রহমত ও বরকত নাজিল করেন। এ কারণেই এ রাতকে লাইলাতুল বরাত বা ভাগ্য রজনী বলা হয়। পবিত্র এ রাত উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলাদা বাণী দিয়েছেন। পবিত্র শবেবরাত উপলক্ষে সংবাদপত্রগুলো বিশেষ নিবন্ধ, প্রবন্ধ, সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারসহ বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলো শবেবরাতের তাৎপর্য তুলে ধরে বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করছে। শবেবরাতের রাতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা নফল ইবাদত-বন্দেগি ও কোরআন তিলাওয়াত করে কাটিয়ে থাকেন। এছাড়া দোয়া, মিলাদ মাহফিলেরও আয়োজন করা হয়। মসজিদ ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে আয়োজন করা হয়েছে ধর্মীয় আলোচনার।

শবেবরাত ফার্সি শব্দ। ‘শব’ অর্থ রাত আর ‘বরাত’ অর্থ ভাগ্য। শবেবরাত অর্থ ভাগ্যরজনী। প্রতি বছরের মতো এবারও শবেবরাত উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সব মসজিদে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান রাতভর ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন থাকবেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন এ উপলক্ষে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।
এদিকে শবেবরাতের রাতে আতশবাজি ও পটকা ফোটানো নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। ডিএমপি’র কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, রোববার দিবাগত রাতে পবিত্র শবেবরাত উদযাপিত হবে। পবিত্র শবেবরাতের পবিত্রতা রক্ষার্থে এবং পবিত্র শবেবরাত অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপন নিশ্চিত করার জন্য রোববার সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত বিস্ফোরক দ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি, বহন এবং ফোটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।