মাকসুদকে আ. লীগ থেকে অব্যাহতি

0
12

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম খোকন জানান, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে তাকে অব্যাহতি দেওয়ার এই সিদ্ধান্ত হয়।

মাকসুদ সোনাগাজী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সোনাগাজী পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি।

নুসরাত হত্যার ঘটনায় মামলার আসামি মাকসুদকে ১০ দিনের রিমান্ডে চেয়ে আদালতে আবেদন করেছে পিবিআই।

বৃহস্পতিবার রাতে পিবিআই ঢাকা মেট্রো উত্তর শাখার একটি দল অভিযান চালিয়ে ফকিরাপুল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল বলেন, “সংগঠনবিরোধী তার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে ও নুসরাত হত্যার ঘটনায় মামলার আসামি হয়ে জেলহাজতে থাকায় তাকে দলীয় পদ থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।”

ফেনীর সোনাগাজীর মেয়ে নুসরাত এ বছর আলিম পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিলেন। সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার ছাত্রী ছিলেন তিনি। ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে ‘শ্লীলতাহানির’ অভিযোগ এনে গত মার্চে সোনাগাজী থানায় একটি মামলা করে নুসরাতের পরিবার।

মামলা তুলে না নেওয়ায় অধ্যক্ষের অনুসারীরা গত শনিবার পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে ডেকে নিয়ে নুসরাতের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে তার পরিবারের অভিযোগ।

অগ্নিদগ্ধ নুসরাতকে প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ফেনী সদর হাসাপাতালে এবং পরে শনিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বুধবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

এ মামলায় বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা ও মাকসুদ আলমসহ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পরিদর্শক শাহ আলম বলেন, তাদের মধ্যে কাউন্সিলর মাকসুদ বাদের সবাই রিমান্ডে রয়েছেন। অধিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাকসুদকে ১০ দিনের রিমান্ডে চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। আগামী ১৫ এপ্রিল এর শুনানির দিন ঠিক করেছে আদালত।