মাদ্রিদে ভালিয়েন্তে বাংলার ১০ বছর পূর্তিতে বর্ণাঢ্য আয়োজন

0
51

বর্ণ্যাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে স্পেনে সরকারি নথিভুক্ত বাংলাদেশি মানবাধিকার সংস্থা ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’র ১০ বছর পূর্তি ও ঈদ পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৫ জুন) মাদ্রিদে বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা লাভাপিয়েস সংলগ্ন ‘কাসিনো পার্ক’ এর খোলা ময়দানে এ উপলক্ষে গুণীজন সম্মাননা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে মাদ্রিদ সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা ও বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি উপস্থিত ছিলেন।
তিনটি পর্বে ভাগ করা অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিলো আলোচনা ও গুণীজন সম্মাননা। ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ এর সভাপতি মো. ফজলে এলাহীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্টিত আলোচনায় বক্তব্য দেন সেবা সংস্থা সেন্ত্র মাদ্রিদ এর প্রধান কারমেন সেপেদা গারসিয়া, রেড ইন্টার লাভাপিয়েসের সভাপতি মারিয়া খসে তররেস পেরেজ পেপা, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, প্রাক্তন সভাপতি আল মামুন, সিনিয়র সহ সভাপতি আল আমিন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর, বাংলা স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. বেলাল, বৃহত্তর ঢাকা অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এমএইচ সোহেল ভূঁইয়া, গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সভাপতি লুৎফুর রহমান, বরিশাল সমিতির উপদেষ্টা মোজাম্মেল হোসেন মনু, ঢাকা জেলা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবেল সামাদ, গাজীপুর জেলা অ্যসোসিয়েশনের সভাপতি মুরশেদুর রহমান তাহের, বৃহত্তর খুলনা বিভাগীয় কল্যাণ সমিতির সভাতি সৈয়দ মাসুদুর রহমান নাসিম, বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জ সমিতির সভাপতি মোমিনুর রহমান স্বাধীন, বিএনপি নেতা আব্দুল কাইয়ূম পঙ্কী, সোহেল আহমদ সমসু, আবু জাফর রাসেল, স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাহাদুল সুহেদ, অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির আল মাহমুদ, ভালিয়েন্তে বাংলার আফরোজা রহমান, শাওন আহমেদ, তানিয়া সুলতানা, জুলহাস উদ্দিন, মশিউর রহমান, কাউসার মৃধা প্রমূখ।
বক্তারা ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ এর ১০ বছর পূর্তিতে শুভেচ্ছা জানান এবং সংগঠনটিকে ‘অভিবাসী বান্ধব সংগঠন’ হিসেবে আখ্যায়িত করে আরো বলেন, অবৈধ হয়ে পড়া বাংলাদেশি অভিবাসীদের সহযোগিতায় সংগঠনটি যেভাবে কাজ করে যাচ্ছে, তা প্রশংসার দাবিদার।
‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ এর সভাপতি মো. ফজলে এলাহি বলেন, মাদ্রিদে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অভিবাসীদের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করার প্রত্যয় নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’। নানা প্রতিকূলতাকে জয় করে সংগঠনটি এগিয়ে যাচ্ছে নিজস্ব স্বকীয়তা অক্ষুন্ন রেখে। দীর্ঘ ১০ বছরে সংগঠনটি অভিবাসীদের বিনামূল্যে সিটি কর্পোরেশনে ঘরের ঠিকানা নথিভুক্ত করা ও সিটি কার্ড গ্রহণে সহায়তা করা, স্প্যানিশ ভাষা শিক্ষার কার্যক্রম, অভিবাসীদের আইনি সহায়তা প্রদান এর পাশাপাশি অভিবাসীদের স্বার্থ নিয়ে আন্দোলনও করে আসছে। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক রমিজ উদ্দিন বলেন, আমাদের সংগঠন যে কেবল বাংলাদেশি অভিবাসীদের সহযোগিতা করছে, তা কিন্তু নয়; অন্যান্য দেশের অভিবাসীদেরও আমরা বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে আসছি। তিনি ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’ এর ১০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত গুণীজনদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়া হয়। সম্মাননা স্মারকপ্রাপ্তদের তালিকায় ছিলেন বাংলাদেশি কমিউনিটির উন্নয়নে ভূমিকা রাখা ব্যক্তিবর্গ- বাংলাদেশ বায়তুল মোকাররম মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম মজুমদার, ব্যবসায়ী আব্দুস সোবহান, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেক, প্রাক্তন সভাপতি আল মামুন, সিনিয়র সহ সভাপতি আল আমিন মিয়া, গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সভাপতি লুৎফুর রহমান, বৃহত্তর ঢাকা অ্যাসোসিয়শেনের সভপতি সোহেল ভূঁইয়া এবং সাংবাদিকতায় সাহাদুল সুহেদ ও কবির আল মাহমুদ। অভিবাসী বাংলাদেশি ও ‘ভালিয়েন্তে বাংলা’কে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছন যেসব স্প্যানিশ নাগরিক, তাদেরকেও সম্মাননা প্রদান কর হয়। তারা হলেন খরখে গারসিয়া কাস্তানিয়ো, মারিয়া খসে তররেস পেরেজ পেপা, মাইতি জাবালজা কাসলা, নিনেস সেখুদো, দেবোরা আভিলা ও পাবলো কারমোনা পাসকুয়াল।
ভালিয়েন্তে বাংলার সদস্যদের মধ্যে মো. ফজলে এলাহি, রমিজ উদ্দিন, তানিয়া সুলতানা ঝর্ণা, লুনা আলম আঁখি, জামিল চৌধুরী নাহারকে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে স্প্যানিশ ভাষা শিক্ষা কোর্স সম্পন্নকারীদেরকে সনদপত্র প্রদান করা হয়।
দ্বিতীয় পর্বে শিশু কিশোরদের বিভিন্ন খেলার প্রতিযোগিতা রাখা হয়। তৃতীয় পর্বে ছিলো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ইংল্যান্ড থেকে আগত শিল্পী নূরজাহান এবং স্থানীয় শিল্পী লোকমান হাকিম ও মোরশেদ আলম তাহেরের সঙ্গীত উপভোগ করেন সমবেত দর্শকরা।

কবির আল মাহমুদ, স্পেন।