মানবতার মুক্তির জন্য মাইজভান্ডারী ত্বরিকা-সৈয়দ হাসান

0
13

সৈয়দ হাসানসৈয়দ হাসান৬ আগষ্ট দুপুরে চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের উদ্যোগে হযরত শাহেন শাহ্ জিয়াউল হক (ক:) মাইজভান্ডারী ট্রাস্টের ট্রাস্টি হযরত আলহাজ্ব সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান (ম: জি: আ:) এর সাথে মুরাদপুরস্থ বিবির হাট গাউছিয়া হক ভান্ডরী খানাকা শরীফে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের অন্যতম উপদেষ্টা বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক আবদুর রহিম এর সভাপতিত্বে ও কবি আসিফ ইকবালের পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ, চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি সোহেল মোহাম্মদ ফখরুদ্-দীন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, অধ্যাপক এ,ওআই, এম, জাফর, মুহাম্মদ আশরাফ খান, সৈয়দ মুহাম্মদ সিরাজ উদ দৌল্লা, কবি এ বি এম ফয়েজ উল্লাহ, পুঁথী গবেষক মুহাম্মদ ইসহাক চৌধুরী, ডা. বরুন কুমার আচার্য্য বলাই, অধ্যাপক শরিফুল কাদের, আমিনুল হক বাবু, চিত্র শিল্পী স্ল্লুব আচার্য্য, মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন, এম আর জামাল (টুটুল) প্রমুখ। মত বিনিময় সভায় আলহাজ্ব সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান (ম: জি: আ:) বলেছে, মাইজ ভান্ডার দরবার শরীফ ও তার ত্বরিকা মানবজাতির মুক্তি ও কল্যানের জন্য নিবেদিত । এ পথ অনুসরন করলে পৃথিবী ও আখেরাতে শান্তি লাভ সম্ভব। তিনি মাইজভান্ডরী ত্বরিকা ও সুফীতত্ত্বের গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, সমাজ সচেতন, শিক্ষা ও মানবতার মূল্যবোধ জাগরণ গঠাতে হবে। মানুষ কে মানুষের কল্যানে এগিয়ে আসতে হবে। সে ক্ষেত্রে সুফীবাদ ও মরমীতত্ত্বের চর্চা ও পবিত্র মাইজভান্ডারী শরীফের ঐ্যশি প্রেম বিষয়ে সাধারণ মানুষ সহ পৃথিবী ব্যাপি প্রচার-প্রসার করার জন্য আগত লেখক, গবেষক, প্রাবন্ধিক ও ইতিহাস গবেষকদের আহবান জানান।
সভার শুরুতে ভারত সার্ক কালচারাল ফোরাম প্রদত্ত সম্মাননা ও মানপত্র, সমাজ এবং মানবতার কল্যানময় কাজের অবদানের জন্য হযরত সৈয়দ মোহম্মদ হাসান (ম: জি: আ:) এর কাছে হস্থান্তর করেন সার্ক কালচারাল ফোরাম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুহাম্মদ আশরাফ খান।