মাসিক ফটিকছড়ি’র সাহিত্য সম্পাদক হলেন কবি তসলিম

0
4

কবি তসলিম খাঁ নিউজ ম্যাগাজিন মাসিক ফটিকছড়ি’র সাহিত্য সম্পাদক হিসেবে সম্প্রতি নিয়োগ পেয়েছেন। প্রত্রিকার সম্পাদক সৈয়দ তারেকুল আনোয়ার জানান, চট্টগ্রামের ৮৬ দশকের কবি তসলিম খাঁ দীর্ঘদিন ধরে সংবাদপত্রে সাহিত্যের নানা শাখায় লেখালেখি করে আসছে আমরা দেখছি। ১৯৯৬ খ্র্রীষ্টাব্দে কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাহিত্যাসরে যোগ দেন এবং কলকাতা প্রেস ক্লাব কর্তৃক তিনি প্রসংশাপত্রে অভিষিক্ত হন। দেশের প্রায় সব দৈনিক ও সাপ্তাহিকে ও সম্পাদিত গ্রন্থেও তিনি লিখে থাকেন। প্রথম জাতীয় ছড়া উৎসব কমিটির তিনি অর্থ উপ-পরিষদ সদস্য ছিলেন। বিজয় মেলায় সাত দিনের মূখপত্র “দৈনিক বিজয় মেলা”র তিনি সহ-সম্পাদক ছিলেন। তাঁর প্রথম শিশুতোষ ছড়া গ্রন্থ “আসল নকল” প্রকাশিত হয় ৯৫ খ্র্রীষ্টাব্দে । তিনি নগরীর স্থানীয় বহু সামাজিক ও সংস্থার সাথে যুক্ত।

কবি তসলিম খাঁ বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের সাবেক উর্দ্দতন কতর্মকর্তা হাটহাজারী গুমানমর্দ্দন নিবাসী প্রবীণ সমাজ হিতৈষী ইঞ্জিনিয়ার আমির ছালামের ৫ম কন্যা খালেদা খানমের সাথে ১৯৯৭ খ্র্রীষ্টাব্দে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ১৯৬৯ খ্র্রীষ্টাব্দে জন্মেছেন চট্টগ্রাম নগরীর ৬৯ নং মুরাদপুর শহীদ জানে আলম সড়কস্থ খ্যাতনামা জমিদার আমির আলী মাঝি’র বাড়ীর তাঁর পৈতিক নিবাসে। তাঁর বাবা ছিলেন সরকারী চাকুরীজীবি বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মো. নূরুল ইসলাম ও মাতা নারী অধিকার আন্দোলনের অগ্রনী যোদ্ধা ছালেহা বেগম। কবি তসলিম খাঁ তাঁদের তৃতীয় সন্তান। তাঁর দুই কন্যা তনিমা, তানিশা ও পুত্র তানভীর। কর্ম জীবন কম্পিউটার সেন্টার রয়েছে নগরীর মুরাদপুরে।

অভিনন্দন: মুরাদপুর সাহিত্য পরিষদের পরিচালক কবি তসলিম খাঁ মাসিক ফটিকছড়ির সাহিত্য সম্পাদক হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন পরিষদ সভাপতি কবি কাজী ইব্রাহিম সেলিম। তিনি তাঁর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন। তিনি, এই কবির বাংলা সাহিত্যের যে অবদান রেখে চলছেন তার ভূয়ষি প্রশংসা করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।