“রবিউল আউয়াল কে স্বাগত জানিয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালী”

0
50

ঈদে  মিলাদুন্নবী (দঃ)হচ্ছে মুসলিম মিল্লাতের ঐক্যের প্রতীক,সূফি মিজান

বন্দর নগরীতে নগর গাউছিয়া কমিটির  উদ্যোগে  পবিত্র মাহে রবিউল আউয়াল উপলক্ষে  স্বাগত  জানিয়ে  এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ ১৯নভেম্বর রোববার বাদে আচর জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদের সমানে থেকে উদ্বোধন করেন পি.এস.পি গ্রুফের চেয়ারম্যান ও সূফি গবেষক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান্ ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সূফি মিজান বলেন, জশনে জুলুসে ঈদে  মিলাদুন্নবী (দঃ)হচ্ছে মুসলিম মিল্লাতের ঐক্যের প্রতীক। কোরআন ও হাদীসের অসংখ্য বর্ণনায় রয়েছে নবী করিম(দঃ)’র শুভাগমনে খুশি উদযাপন উপলক্ষে অত্যন্ত ভক্তি ও মহব্বত সহকারে মিলাদুন্নবী (দঃ) উদযাপন করা ।

তাই মুসলিমদের জন্য নবী করিম (দঃ)আগমনেনের চাইতে আর কোন বড় উপলক্ষ্য হতে পারে না।আর এই মুসলিমদের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে রাহনোমায়ে শরিয়ত ও তরিকত মোজাদ্দেদে দ্বীনে মিল্লাত হযরত তৈয়ব শাহ(রাঃ)।তাই ইসলামী সংস্কৃতিতে প্রতিষ্ঠা করেন “জশনে জুলুসে ঈদে  মিলাদুন্নবী (দঃ)”।

নগর গাউছিয়া কমিটির আলহাজ্ব আবুল মুনসুরের সভাপতিত্বে এবং সাঃ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ মাহবুবুল আলমের পরিচালনায়ে সভাকে উদ্বোধক অতিথি ছিলেন আনজুমানে রহমানিয়া আহম্মদিয়া সুন্নিয়ার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহসিন,প্রধান বক্তা ছিলেন জেনারেল সেক্রেটারী আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন,বিশেষ অতিথি-গাউছিয়া কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার আহম্মদ,আনোয়ারুল হক,মাহবুব খান,শাহজাদা ইবনে দিদার,মোসাহেব উদ্দিন বখতিয়ার,মাহবুবে এলাহি সিকদার।

অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্যে রাখেন-মীর সেকান্দার মিয়া,হাজী সেলিম,আর ইউ চৌধুর শাহিন,আবু তাহের,ইদ্রিস বশর,ছালামত উল্লাহ,আবু তাহের,হাজী মোঃ হাছান,মোঃ মুসলিম,মাওলানা মনির উদ্দিন সোহেল প্রমুখ।

স্বাগত র‌্যালীটি আলমাছ,কাজীর দেউড়ি,নুর আহম্মদ রোড,জুবলী রোড,নিউ মার্কেট ,কোতোয়ালী হয়ে লালদিঘী মাঠে গিয়ে  বিশেষ মুনজাতের মাধ্যমে সমাপ্তী হয়্ । পবিত্র ১২ই রবিউল আউয়াল উপলক্ষে কর্মসূচি তে ৯ রবিউল আউয়াল ঢাকাতে আর ১২ই রবিউল আউয়াল বন্দরনগরী চট্টগ্রামে মহাসমারোহে“জশনে জুলুসে ঈদে  মিলাদুন্নবী (দঃ)”র জুলশ বের করবে বলে ঘোষনা দেন গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ উদযাপন করবেন।