রবীন্দ্রনাথের চিন্তাধারা বর্তমান সমাজ ব্যবস্থায়ও সমান প্রাসঙ্গিক

0
30

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত অমর একুশে বইমেলা চট্টগ্রাম’র ৩য় দিনে রবীন্দ্র উৎসবের আলোচনা সভা চবি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে গতকাল ১২ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টায় জিমনেশিয়ামস্থ অমর একুশে বইমেলা মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়। এতে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা অমর একুশে বই মেলা চট্টগ্রামের সদস্য সচিব অধ্যাপক সুমন বড়ুয়া। ধন্যবাদ বক্তব্য রাখেন আলোচনা ও অনুষ্ঠান উপ-কমিটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন মজুমদার প্রমুখ। সভায় অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন রবীন্দ্রনাথকে আমরা বিশ্ব শান্তির এক অসামান্য সংগঠক ভাবতে পারি। রবীন্দ্রনাথ বলেছিলেন মাতৃভাষাকে যে উপেক্ষা করে সে নিজেকে উপেক্ষা করে। শিক্ষায় মাতৃভাষা হচ্ছে মাতৃদুগ্ধের অতুলনীয়। তিনি বলেন রবীন্দ্রনাথই প্রথম বলেছিলেন শিক্ষা মানে প্রযুক্তি। অথচ আমরা আজকের দিনেও বলতে পারছিনা শিক্ষা মানে প্রযুক্তি। আজ থেকে ১৪০ বছর আগে রবীন্দ্রনাথ বলেছিলেন সৃষ্টিশীলতার অনন্য উৎস শিক্ষা। উপমহাদেশে রবীন্দ্রনাথই প্রথম কৃষি ব্যাংক, ক্ষুদ্র ঋণ ব্যবস্থার প্রচলন করেছিলেন যা আজও সমাজ বাস্তবতায় প্রচলিত। রবীন্দ্রনাথ বিজ্ঞান, পরিবেশ, চিকিৎসা, কৃষিসহ সাহিত্য সংগীতের সর্বক্ষেত্রে সমান প্রাধান্য বিস্তার করে লেখালেখি করেছেন। আজ থেকে ১২০ বছর পূর্বে রবীন্দ্রনাথের প্রথম একসাথে বৃক্ষরোপন শব্দটির প্রচলন করেছিলেন। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় আজও বৃক্ষরোপনের বিকল্প নেই। রবীন্দ্রনাথই প্রথম বলেছিলেন কৃষি সভ্যতার মাধ্যমে প্রযুক্তির উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে। মাত্র ১৯ বছর বয়সে রবীন্দ্রনাথ একটি দার্শনিক উক্তি উল্লেখ্য করেছিলেন টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য মাত্রা যা আজ এসডিজি নামে খ্যাত। উপমহাদেশে রবীন্দ্রনাথ ১১১ বছর পূর্বে ডেইরী ফার্মের চিন্তাধারা শুরু করেছিলেন যার ব্যাপ্তি বর্তমানেও ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করছে। তিনি বলেন বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নোবেল বিজয়ের পর বিভিন্ন লেখক যারা রবীন্দ্রনাথকে বই উপহার দিয়েছিলেন তাদের প্রত্যেকের উদ্দেশ্যে রবীন্দ্রনাথ পরবর্তীতে নিজের দেশকে নিয়ে লেখা-লেখি করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। তিনি বলেন রবীন্দ্রনাথের গানে বাণী যদি আমরা বুঝতে না পারি তাহলে তা হবে চায়ের দোকানে চা-সিঙ্গারা খাওয়ার মত সমান। আমরা প্রত্যেকের উচিৎ নিজেকে তৈরী হতে হলে রবীন্দ্রনাথের সাহিত্য, গান ও কবিতা হৃদয় থেকে অনুধাবণ করা উচিত। রবীন্দ্রনাথের সাহিত্যে একটি ভিলেন চরিত্রে উপস্থিতিও নেই। রবীন্দ্রনাথ প্রথম ১৯৩৭ সালে ৫০০ টাকা দিয়ে চীন সহায়তা তহবিল করেছিল যা পরবর্তীতে ব্যাপকতা লাভ করেছে। রবীন্দ্রনাথ সবসময় নিজের জন্য কিছুই রাখেননি। নিজের অর্জিত অনেক কিছুই জনগণের মাঝে উজাড় করে দিয়েছেন। ১৯২১ সালে বহরমপুর জেলে কাজী নজরুল ইসলাম ৩৭ দিন অনশনের ঘোষণা দিয়েছিলেন তখন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাজী নজরুল ইসলামকে অনশন ভাঙ্গার অনুরোধ করেন। তখনই তিনি কাজী নজরুলের মধ্যে বিদ্রোহের চাপ লক্ষ্য করেছিলেন। রবীন্দ্রনাথের লেখনিতে শিক্ষায় ধর্ম কখনো প্রাধান্য বিস্তার করেনা। শিক্ষা হচ্ছে মাতৃদুগ্ধের মত অফুরন্ত। তিনি বলেছেন রবীন্দ্রনাথ সবসময় শিক্ষার জন্য নির্জন প্রকৃতি একাকীর্ত্বে নিজেকে মনোনিবেশ করার উপর প্রাধান্য দিয়েছিলেন। আর সে জন্যই তিনি শান্তি নিকেতনকে বেঁচে নিয়েছিলেন। সভা শেষে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করেন চট্টগ্রামের শিল্পীবৃন্দ। আজ ১৩ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৪.৩০টায় অমর একুশে বইমেলা মঞ্চে শিশু-কিশোর উৎসবে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। এতে আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্ট নাট্য অভিনেত্রী বন্যা মির্জা। এতে সভাপতিত্ব করবেন বিশিষ্ট সাহিত্যিক অধ্যক্ষ ড. আনোয়ারা আলম।