রাউজানের পুকুর ভরাট করে পাকা ভবন নির্মান

0
21

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃ রাউজান পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পালিত পাড়া এলাকায় মিলন পালিত শত বৎসরের পুরাতন পুকুর ভরাট করে পাকা ভবন নির্মান করেছে । রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের পালিত পাড়া এলাকার মুক্তিযোদ্বা বাবুল চন্দ্র পালিত অভিযোগ করে বলেন, গত চার বৎসর পুর্বে তার ভাই মিলন পালিত পাকা ভবন নির্মান করার কথা বলে মুক্তিযোদ্বা বাবুল চন্দ্র পালিতের মাটির ঘর ভেঙ্গে ফেলে । মিলন ও বাবুল পালিতের ঘর ভেঙ্গে মিলন পালিত তাদের পুর্ব পুরুষের শত বৎসরের পুরাতন পুকুর ভরাট করে পাকা ভবন নির্মান করে । মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিতের পাশের্^ মিলন পালিতের নির্মান করা পাকা ঘরের দেওয়াল না দেওয়ায় মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিত তার ঘর নির্মান করতে পারছেনা । মিলন পালিত ঘরের পেছনের শত বৎসরের পুরাতন পুকুর ভরাট করে পাকা ভবন নির্মান করায় মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিত পেছনের পুকুর ঘর থেকে বেরা হওয়ার রাস্তা বন্দ্ব হয়ে যায় । গত চার বৎসর ধরে মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিত তার পরিবার পরিজন নিয়ে ভাড়া ঘরে বসাবাস করে আসছে । এ ব্যাপারে মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিত রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবিরের কাছে অভিযোগ করে । মুক্তিযোদ্বা বাবুল পালিতের অভিযোগের পরিপেক্ষিতে গতকাল ২৭ সেপ্টেম্বর বৃহসাপতিবার দুপুরে রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবির সোহাগ রাউজান পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের পালিত পাড়া এলাকায় সরেজমিনে পরিদর্শন ও পরিমাপ করে পুকুর ভরাট করে নির্মান করা পাকা ভবন ভেঙ্গে ফেলার জন্য নির্দেশ প্রদান করে মিলনা পালিতকে । পুকুর ভরাট করে নির্মান করা ভবন ভেঙ্গে না নিলে মিলন পালিতের বিরুদ্বে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি জোনায়েদ কবির সোহাগ জানান ।