রাউজানের বেরুলিয়া খাল ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

0
4

খাল ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা নির্মান করায় এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায়

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃরাউজানে বেরুলিয়া খাল ভরাট করে নির্মান করছে অবৈধ স্থাপনা।খাল ভরাট করা ও জনগনের চলাচলের সড়ক বন্দ্ব করে দেওয়া ও খালের মদ্যৈ পাইপ দিয়ে শৌচাগারের ময়লা ফেলার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যজিষ্ট্রেট শামীম হোসেন রেজা। রাউজান উপজেলা ডাবুয়া ইউনিয়নের হিংগলা ও হাসান খীল, রাউজান পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ছত্র পাড়া, সুলতানপুর, বড়বাড়ী পাড়া, বেরুলিয়া, রাউজান পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের সুলতান পুর, ছিটিয়া পাড়া, রাউজানের বিনাজুরী ইউনিয়নের লেলেঙ্গারা হয়ে রেরুলিয়া খালটি কাগতিয়া খালের সাথে মিলিত হয়েছে । বেরুলিয়া খাল দিয়ে এক সময়ে জোয়ার ভাটার পানি আসা ডাওয়া করতো । খাল দিয়ে নৌকা সাম্পানে করে মালামাল পরিবহন করা হতো । বেরুলিয়া খালটি ডাবুয়া ইউনিয়নের হিংগলা ও হাসান খীল, রাউজান পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ছত্র পাড়া, সুলতানপুর, বড়বাড়ী পাড়া, বেরুলিয়া, রাউজান পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের সুলতান পুর, ছিটিয়া পাড়া, রাউজানের বিনাজুরী ইউনিয়নের লেলেঙ্গারা এলাকায় ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলা হয়েছে । বেরুলিয়া খাল ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলায় বর্ষার মৌসুমে পাহাড়ী ঢলের শ্রোতের পানি প্রবাহিত হতে প্রতিবন্দ্বকতা সৃষ্টি হয়ে এলাকায় জলবদ্বতা সৃুষ্টি হয়ে এলাকার মানুষের বাড়ীঘর, ফসলী জমি পানিতে ডুবে এলাকার সাধারন মানুষকে চরম দুভোর্গ পোহাতে হয় । অপরদিকে শুস্ক মৌসুমে খালে পানি না থাকায় সেচের অভাবে বোরো ধান ও রবিশষ্যের চাষাবাদ ব্যহত হয়ে আসছে । রাউজানের ছত্র পাড়া এলাকার বাসিন্দ্বা সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট আবদুল মান্নান রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজার আদালতে অভিযোগ করেন তার বাড়ী ও এলাকার দুই শতাধিক পরিবারের চলাচলের সড়ক বন্দ্ব করে বেরুলিয়া খাল ভরাট করে ছত্র পাড়া এলাকার বাইল্যা পাকা দেওয়াল নির্মান করে । রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজা ৮ অক্টোবর সোমবার খাল দখল করে ও জনগনের চলাচলের সড়ক বন্দ্ব করে পাকা দেওয়াল নির্মান কারী ছত্র পাড়া এলাকায় বাইল্যাকে নেটিশ দিয়ে তার আদালতে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেয় । ৮ অক্টোবর সোমবার দুপুরে খাল দখলকারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজার আদালতে হাজির হলে খাল ভরাট ও জনগনের চলাচলের সড়ক বন্দ্ব করে পাকা দেওয়াল নির্মান করার অপরাধে বাইল্যাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও জরিমানার টাকা অনাদায়ে এক বৎসরের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদানের রায় প্রদান করে । খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ প্রদান করে । পরে বাইল্যা ৫০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে ছাড়া পায় । রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজা বলেন, শীঘ্রই বেরুলিয়া খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে খালের জায়গা অবমুক্ত করে খাল খনন করে পানি চলাচলের ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।