রাউজানে ফসলী জমি গিলে খাচ্ছে ইটের ভাটা

0
21

 

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃ রাউজান উপজেলার ১নং হলদিযা ইউনিয়নের বৃকবানপুর, বৃন্দ্বাবনপুর, বানারস, ডাবূযা ইউনিয়নের মেলুয়া, কলমপতি, রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের আইলী খীল, দাওয়াত খোলা, ওয়াহেদের খীল, জঙ্গল রাউজান, পুর্ব রাউজান, রশিদর পাড়া, রাউজানের পশ্চিম আবুল খীল, মোকামী পাড়া এলাকায় গড়ে উঠা ইটের ভাটায় ইট তৈয়ারীর কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে ফসলী জমির মাটি । রাউজানের সবগুলো ইটের ভাটায় ফসলী জমির মাটি এসকেভেটার দিয়ে কেটে ড্রাম ট্রাক ভর্তি করে ইটের ভাটায় এনে মাটির স্তুপ করে রাখার পর ঐ মাটি দিয়ে ইট তৈয়ারী করা হচ্ছে । সরজমিওেন পরিদর্মন কালে দেখা যায় রাউজান উপজেলার ১নং হলদিযা ইউনিয়নের বৃকবানপুর, বৃন্দ্বাবনপুর, বানারস, ডাবূযা ইউনিয়নের মেলুয়া, কলমপতি, রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের আইলী খীল, দাওয়াত খোলা, ওয়াহেদের খীল, জঙ্গল রাউজান, পুর্ব রাউজান, রশিদর পাড়া, রাউজানের পশ্চিম আবুল খীল, মোকামী পাড়া এলাকায় গড়ে উঠা ইটের ভাটার পাশে বিপুল পরিমান আয়তনের ফসলী জমির মাটি খনন করে ইটের ভাটায় নিয়ে যাওয়ায় ফসলী জমি গভীর জলাশয় ও খাদে পরিনত হয়ে পড়েছে । এছাড়া ও রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় ফসলী জমির মাটি খনন করে ট্রাক যোগে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় পুকুর জলাশয় ও ফসলী জমি ভরাট কাজে সরবরাহ করে আসছে । রাউজানে ফসলী জমির পরিমান এক সময়ে ১৩ হাজার হেক্টর হলে ও বর্তমানে ফসলী জমিভরাট করে বাড়ী ঘর ও বাণ্যিজিক প্রতিষ্টান নির্মান করা ও ফসলী জমি থেকে মাটি খনন করায় ফসলী জমির পরিমাণ হৃাস পেয়ে ১১ হাজার হেক্টর । রাউজান উপজেলা কৃষি অফিস পুর্বের হিসাব বহাল রাখলে ও প্রতিদিন ফসলী জমিতে মাটি ভরাট করে ঘর বাড়ী বাণ্যিজিক প্রতিষ্টান নির্মান ও ফসলী জমি থেকে মাটি খনন করে ইটের ভাটায় ইট তৈয়ারী করায় যে পরিমান জমি কমেছে তা কৃষি অফিসের কাছে হিসাব নেই । রাউজান উপজেলা কৃষি অফিসের উপ সহকারী কৃষি কর্মকতা সনজিব কুমার সুশিল জানান রাউজানে গত কয়েক বৎসরে ৫০ হেক্টর জমি কমেছে । ৫০ হেক্টর জমিতে সরকারী বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে তোলা হয়েছে । সরকার কৃষি জমি থেকে মাটি খনন না করা ও কৃষি জমি ভরাট করে ঘর বাড়ী ব্যবসা প্রতিষ্টান নির্মান না করার নিদের্শনা জারী করলে ও রাউজানে সরকারী নির্দেশনা না মেনে কৃষি জমি ভরাট ও কৃষি জমি খনন কাজ চলছে । গত ৬মাস পুর্বে অভিযান চললে ও বর্তমানে অভিযানে ভাটা পড়[য় প্রতিদিন রাতে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় কৃষি জমি খনন করে কৃষির জমি মাটি ড্রাম ট্রাক যোগে সড়ক দিয়ে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় ভরাট কাজে পাচার করে আসছে