সরকারি কর্মীদের হুমকি সানি দেওলের

0
37

প্রকাশ্যে জনসভায় দাঁড়িয়ে সরকারি কর্মীদের মারধরের হুমকি দিয়ে নতুন বিতর্ক তৈরি করলেন বিজেপি সাংসদ সানি দেওল। তার মন্তব্যের কথা প্রকাশ্যে আসতেই নিন্দা করছে বিরোধীরা। একজন অভিনেতাকে নেতা বানালে এই রকমই হবে বলে কটাক্ষ করছে কংগ্রেস। গত শনিবার পাঞ্জাবের পাঠানকোটে একটি জনসভায় বক্তব্য রাখতে এসেছিলেন পাঞ্জাবের গুরুদাসপুরের সাংসদ সানি। সেখানে দাঁড়িয়ে কখন কাকে মারতে হবে তা তিনি ভালভাবেই জানেন বলে উল্লেখ করেন। বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে রাজ্য সরকারের কর্মচারীরা আমার এলাকার সাধারণ মানুষকে আমার বিরুদ্ধে উসকে দেওয়া চেষ্টা করছেন। সাধারণ মানুষকে হেনস্তা করছেন। বলছেন, আমাকে জিতিয়ে তারা ভুল করেছেন।
তবে এত তুচ্ছ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না। কারণ বিতর্কিত মন্তব্য করতে আমার ভাল লাগ না। এই পথে আমার বিশ্বাসও নেই। তবে কাউকে মারধরের বিষয় এলে আমার থেকে ভাল যে কেউ নেই এটা সবাই জানে। সানি দেওলের এই বক্তব্য কথা জানাজানি হতেই তীব্র নিন্দা করে বিরোধীরা। স্থানীয় বোহা বিধানসভার কংগ্রেস বিধায়ক যোগিন্দার পাল বলেন, এতে সানি দেওলের কোনও দোষ নেই। কারণ রাজনীতির বিষয়ে উনি কিছু জানেন না। এটা বিজেপিরই দোষ। তবে আমি এটাও বুঝতে পারছি না কেন সানি দেওল আচমকা রাজনীতিতে যোগ দিলেন। আজকে তিনি যেমন নাচছেন আগে সিনেমাতেও সেই রকম নাচতেন। শনিবার থেকে মানুষের সমস্যা জানার জন্য পাঞ্জাবের বিভিন্ন জেলায় তিনদিনের সফরে বেরিয়েছেন সানি দেওল। শনিবার তার প্রথম জনসভাটি করেন পাঠানকোটে। সেখানকার জনগণের সঙ্গে কথা বলে তাদের সমস্যাগুলি জানার চেষ্টা করেন। পরে এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের বলেন, আমরা শুধুমাত্র এখানকার সাধারণ মানুষের সমস্যার কথা জানতে এসেছি। তাই স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে তাদের সমস্যাগুলি জানার চেষ্টা করছি।