সীমাবদ্ধতার মধ্য দিয়েও আপনাদের দেশ সেবা প্রশংসনীয়

0
7

চমেক শিক্ষকবৃন্দের সাথে মত বিনিময় সভায় মেয়র

সীমাবদ্ধতার মধ্য দিয়েও আপনাদের দেশ সেবা প্রশংসনীয়চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিক্ষকবৃন্দের সাথে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, উন্নত দেশের হাসপাতালের চেয়ে আমাদের দেশে জনসংখ্যা যেমন বেশি,একই ভাবে এদেশে রোগীর সংখ্যাও বেশি-এটাই স্বাভাবিক। যার ফলে এদেশে আপনারা যারা সেবার মত মহৎ পেশায় নিজেকে নিয়োজিত করেছেন তাদের উপর রোগীর চাপও বেশি। এর উপর নি¤œ মধ্য আয়ের দেশ হিসেবে আমাদের নানা সীমাবদ্ধতাও রয়েছে। তবে যে কথাটি বলতে হয়, নানা সীমাবদ্ধতার মধ্য দিয়েও আপনারা দেশ-জনগণের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন-এটা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। মেয়র আরো বলেন, আমাদের চট্টগ্রামের জন্য সরকার পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়, তবে দুঃখজনক ব্যাপার হলো এসব প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা একটি প্রধান অন্তরায়। এ কারণে প্রকল্প বাস্তবায়নেও দীর্ঘসূত্রিতা ঘটে। চট্টগ্রামের প্রতি আমলাতন্ত্রের এই বিমাতাসুলভ আচরণ দীর্ঘকালীন একটি সমস্যা। আমরা এই সমস্যার আশু সমাধান চাই। ২৭আগষ্ট ২০১৫ খ্রি. বৃহষ্পতিবার বেলা ১২টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নতুন ভবনে শিক্ষকবৃন্দ আয়োজিত মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কোতোয়ালী-৯ আসনের সংসদ সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু। সভায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ,পরিচালক,চিকিৎসকবৃন্দের পক্ষ থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ে রুপান্তর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবী জানানো হয়। একই সাথে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় ভূমি অধিগ্রহণে সংশ্লিষ্ট পক্ষের হস্তক্ষেপ কামনাসহ হাসপাতালের ভবন স্বল্পতা,বিদ্যুৎ স্বল্পতা, স্টাফ কোয়ার্টার স্বল্পতা, ছাত্রাবাস নির্মাণ,চিকিৎসা কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি মেরামতে কারিগরী প্রযুক্তি ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণের ব্যাপারেও সংশ্লিষ্ট পক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
বিএমএ সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খানের সভাপতিত্বে ও ডা. বিশ্বজিত দত্তের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন- চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. সেলিম মো. জাহাঙ্গীর, চমেক হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শহীদুল গণি প্রমুখ।