সোলারের আলোয় আলোকিত চন্দ্রঘোনা

mirza imtiaz প্রকাশ:| রবিবার, ১৮ নভেম্বর , ২০১৮ সময় ০১:১১ পূর্বাহ্ণ

নজরুল ইসলাম লাভলু,কাপ্তাই:
সরকারি ভাবে বরাদ্দ দেওয়া সোলার ও সোলার বাতির আলোয় আলোকিত হয়ে উঠেছে কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন এলাকা। ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ করে মসজিদ, মন্দিরসহ অন্ধকারাচ্ছন্ন সড়কে এসব সোলার লাইট লাগানো হয়েছে। এতে ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় দীর্ঘদিনের অন্ধকার দূর হয়েছে।
     সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,বিদ্যুতের ঘাটতি মিটাতে সরকার দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে বিনামূল্যে সোলার ও সোলার বাতি বিতরন করছে। এরই অংশ হিসেবে কাপ্তাইয়ের চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার বিভিন্ন স্থানে সোলার বাতি বিতরন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ইউনিয়নের বারঘোনা ফরেষ্ট অফিস সংলগ্ন মাদ্রাসা, বারঘোনা  গেট মসজিদ,  বারঘোনা গেট, মিতিঙ্গাছড়ি কিয়াং, নালন্দা বিহার, রেশম বাগান চেকপোষ্ট মসজিদ, বলির বাড়ি মসজিদ, রেশম বাগান বৌদ্ধ মন্দির,  কয়লার ডিপু শ্রী শ্রী হরি মন্দির, কয়লার ডিপু জামে মসজিদ, কেপিএম ডিসিএল মসজিদ, কেপিএম হাসপাতাল এলাকা,হাসপাতাল মসজিদ, কেপিএম সিবিএ অফিস সংলগ্ন মসজিদ,মধ্য কলাবাগান মসজিদ, কেপিএম বি-ব্লক মসজিদ,  থানাঘাট মসজিদ, ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দির, মিশন মধুছড়ি মন্দির, ফকিরাঘোনা মসজিদ, ছাদেকের ঘোনা মসজিদ, বারঘোনা বায়তুল ফালা মসজিদ, খানকা-এ-রহমানিয়া, বারঘোনা ৯ নং লাইন মসজিদ, ব্রীকফিল্ড মসজিদ, চৌরাস্তার মোড়সহ এলাকার বিভিন্ন স্থানে সোলার বাতি দেওয়া হয়েছে।এতে দীর্ঘদিনের অন্ধকার দূর হয়ে এলাকা আলো ঝলমল করছে। এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী জানান, দীর্ঘদিন ধরে কেপিএম আবাসিক এলাকার বিভিন্ন স্থানে গুটগুটে অন্ধকার ছিল। সরকারের দেওয়া  সোলার ও সোলার বাতি বিনামূল্যে সরবরাহ করায় এলাকার অন্ধকারাচ্ছন্ন অবস্থা অনেকটা দূর হলো। উল্লেখ্য,কেপিএমের আর্থিক সংকটের কারণে আবাসিক এলাকার অনেক বাসা পরিত্যক্তসহ আশপাশের এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।এতে ওই সব এলাকা অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে।


আরোও সংবাদ