স্বর্ণলংকার দু লাখ ৬০ হাজার টাকা সহ মালামাল লুট আহত ১

0
32

শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃ রাউজানের উরকিরচরে দুর্ধষ ডাকাতির ঘটনা সংগঠিত ৩১ ভরি ওজনের স্বর্ণলংকার দু লাখ ৬০ হাজার টাকা ও ৬টি মোবাইল ফোন লুট করে ডাকাত দলের সদস্যরা নিয়ে যায়, দুর্ধষ ডাকাতদলের হামলায় শেখ পারভেজ আহত হয় । রাউজান উপজেলার ১২ নং উরকিরচর ইউনিয়নের হারপাড়া এলাকায় উরকিরচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম শেখ শফিউল আলমের ২তলা পাকা ভবনে গত ২০ মার্চ শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার সময়ে ডাকাত দলের সদস্যরা হানা দেয় । ডাকাত দলের সদস্যরা পাকা ভবনের সিড়ির রুমের নিচের দরজা ভেঙ্গে ভবনে প্রবেশ করে । ডাকাতদলে সদস্যরা পরিবারের সদস্যদেরঅস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ভবনের কয়েকটি কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ভবনের কক্ষে প্রবেশ করে ভবনের কক্ষের মধ্যে আলমিরা ভেঙ্গে ৩১ ভরি ওজনের স্বর্ণলংকার দু লাখ ৬০ হাজার টাকা ও ৬টি মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায় । ডাকাত দলের সদস্যদের বাধা প্রদান করায় শেখ পারভেজ(৫০) কে ধারালে ধামা দিয়ে মাথায় কুপিয়ে মারাত্বক ভাবে জখম করে। ডাকাতির ঘটনা চলাকালে রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্লাহর রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মহসিন রেজাকে ফোন করে ডাকাতির ঘটনার সংবাদ দিলে রাতেই রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্লাহর রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মহসিন রেজা সহ পুলিশের দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় । এলাকার লোকজন জানান পুলিশ যে ভবনে ডাকাতি হচ্ছে ঐ ভবনে না গিয়ে ডাকাতি হওয়া ভবনের কিছু দুরে আর একটি পাকা ভবন চারিদিকে ঘেরাও করে বাশি বাজায় । পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছার পর আর একটি ভব্ন ঘেরা ও করে বাশি বাজানেসার সময়ে ও সাবেক চেয়ারম্যান শেখ শফিউল আলমের পাকা ভবনে ডাকাতেরা ডাকাতি করছে । পুলিশের বাশির শব্দ শুনে ডাকাত দলের সদস্যরা লুন্ঠিত মালামাল ও স্বর্ণলংকার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় । পরে পুলিশ ডাকাতি হওয়াি ভবনে উপস্থিত হয়ে ডাকাতের হামলায় আহত পারভেজকে উদ্বার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় । ডাকাত দলের সদস্যরা ২য় তলা পাকা ভবনের নিচের তলায় মরহুম শেখ শফিউল আলমের পুত্র শেখ জাহেদুল ইসলামের ঘর, ২য তলায় মরহুম শেখ শফিউল আলমের পুত্র শেখ পারভেজ, ফরহাদের কক্ষে ডাকাতির ঘটনা সংগঠিত করে। ২১ মার্চ শনিবার দুপুরে ডাকাতির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার বাবুল, রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেনায়েদ কবির সোহাগ,রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্ল্যাহ, রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মহসিন রেজা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, উরকির চর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল । রাউজানের উরকিরচরে দুর্ধষ ডকাতির ঘটনার বিষয়ে রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্ল্যাহ বলেন, ডাকতির ঘটনায় কারা জড়িত তাদের গ্রেফতার করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ । ডাকাতির ঘটনার ব্যাপারে মামলা রুজু করার প্রক্রিয়া চলছে ।