হোয়াইক্যংয়ে ৩নিরীহ ব্যক্তিকে মিথ্যা মামলা দেয়ার অভিযোগ

0
7

ফরহাদ রহমান, টেকনাফ::

টেকনাফে তিন নিরীহ ব্যাক্তিকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) কর্তৃক সার পাচার মামলায় জড়ানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিজিবির মামলায় জড়ানো ব্যাক্তিদ্বয় গা ঢাকা দেয়ায় তাদের পরিবারের দূরাবস্থায় নেমে আসার খবর পাওয়া গেছে। জানা গেছে, ২৩ ফেব্রুয়ারী ভোর রাত সাড়ে ৫ টার দিকে হোয়াইক্যং খারাইংগ্যা ঘোনা এলাকার নাফ নদীর মাঝ থেকে হোয়াইক্যং বিওপির জওয়ানরা অভিযান চালিয়ে ১৭ বস্তা ইউরিয়া সারসহ ২টি কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়েছিল। এসময় কোন পাচারকারীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু সার পাচারের ওই মামলায় স্থানীয় মোঃ আবুল বশারের ছেলে গোলাম আকবর, মুসা আকবর এবং মঈন উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ শুক্কুরকে পলাতক দেখিয়ে মামলা দায়ের করে বিজিবি। মামলা জড়ানো ওই তিন ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, তারা ওই ধরণের পাচারকাজে তারা জড়িত নই। মামলাটি স্থানীয় পতিপক্ষ উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে বিজিবিকে ভূল তথ্য দিয়ে মামলায় জড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মোহাম্মদ শুক্কুর বলেন, নাফ নদীর মাঝ হতে ওই সার সমূহ আটক করে, কিন্তু কিসের ভিত্তিতে মামলায় জড়ানো হয়েছে তা আমার বোধগম্য নই। ওই এলাকার অনেকে বলেন তারা খুবই গরিব ও নিরীহ, যাদের নুন আনতে পানতা পুরায়। তাদের উদ্দেশ্যমূলকভাবে মামলায় জড়ানো হয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য মোস্তফা কামাল চৌধুরী জানান, তারা এ ধরণের ব্যবসায় জড়িত থাকতে পারেনা। তবে বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ব্যস্থা নেয়ার দাবী জানান। জানতে চাইলে হোয়াইক্যং বিওপির কোম্পানী কমান্ডার জজ মিয়া জানান-ওই সময় বিজিবি টহল দল অভিযান চালালে নৌকা থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে বিধায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।