১০ টাকার জন্য সন্তানকে হত্যা করলেন মা!

0
27

লক্ষ্মীপুরে ১০ টাকা চাওয়ায় সন্তানকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার মায়ের বিরুদ্ধে। নিহত শিশুর নাম মো. কাউছার (৮)।

সোমবার মধ্যরাতে সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জালাল আহম্মদ হাওলাদারবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত কাউছার একই এলাকার কাভার্ডভ্যানচালক মো. রাসেলের ছেলে ও স্থানীয় লোকমানিয়া হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

এ ঘটনায় মা স্বপ্না বেগমসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে পুলিশের কাছে শ্বাসরোধে ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন মা স্বপ্না।

স্থানীয়রা জানান, গাড়িচালক হওয়ায় বেশিরভাগ সময়ই কাউছারের বাবা রাসেল লক্ষ্মীপুরের বাইরে থাকতেন। রাতে শিশুটি তার মা স্বপ্নার কাছে ১০ টাকা চায়। এতে তাকে মারধর করা হয়। একপর্যায়ে স্বপ্না তাকে গলা টিপে ধরে। কিছুক্ষণ পরই কাউছার মারা যায়।

এর পর মারা গেছে বলে স্বপ্না চিৎকার দিয়ে কান্না শুরু করেন। এর আগেও একটি মেয়েসন্তান স্বপ্নার বাবার বাড়িতে রহস্যজনক কারণে মারা যায়।
এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান জানান, রাসেল দ্বিতীয় বিয়ে করার কারণে সংসারে কলহ চলছিল। পরিবারে অর্থনৈতিক সংকটও দেখা দেয়। এ জন্য স্বপ্নার কাছে ১০ টাকা চাইলে শিশুটিকে ক্ষিপ্ত হয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়।

পরে শিশুটিকে ওড়না দিয়ে পেঁচিয়ে পাখার (ফ্যান) সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে অপপ্রচার চালানোর চেষ্টা করা হয়। তিনি বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে শিশুর মাসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। পরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে স্বপ্না শ্বাসরোধ করে ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।