৭ মে পর্যন্ত সময় পেয়েছেন প্রিন্স মুসা

0
8

শুল্ক ফাঁকি ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজিরা দিতে আগামী ৭ মে পর্যন্ত সময় পেয়েছেন প্রিন্স মুসা বিন শমসের। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ সময় দিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মইনুল খান।

 

প্রিন্স মুসার আবেদন পরীক্ষা করে শনিবার দুই সপ্তাহ সময় দিয়ে নোটিশ ইস্যু করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। এর আগে তাকে ২০ এপ্রিল হাজির হতে নোটিশ দেয় সংস্থাটি। কিন্তু আংশিক পক্ষাঘাতগ্রস্ত ও বাকরুদ্ধের মতো নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ দেখিয়ে সময় প্রার্থনা করেন প্রিন্স মুসা। এরপরই যাচাই-বাছাই শেষে সময় বৃদ্ধি করে তাকে ৭ মে বিকেল ৩টায় শুল্ক গোয়েন্দায় হাজির হতে আবার চিঠি দেয়া হয়।

 

১৯ এপ্রিল, বুধবার শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে সশরীরে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরে উপস্থিত হতে সময় প্রার্থনা করে আবেদন জানান প্রিন্স মুসা।

 

এর আগে গত ২১ মার্চ গুলশান-২ এর রোড নম্বর ১০৪ হাউস ৮ এর বাড়িতে অভিযানের সূত্রে রেঞ্জ রোভার গাড়ি আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা। গাড়িটি ভোলা বিআরটিএ থেকে ভুয়া বিল অব এন্ট্রি দিয়ে জনৈক ফারুকুজ্জামানের নামে রেজিস্ট্রেশন করানো হয়। গাড়ির নম্বর ভোলা (ঘ ১১-০০৩৫)।

 

সূত্র জানায়, গাড়ির চেসিস অনুসারে এটি কার্নেট ডি প্যাসেজের মাধ্যমে আনা হলেও শর্ত মোতাবেক পুনঃরফতানি হয়নি। প্রিন্স মুসা গাড়িটি শুল্কমুক্ত সুবিধার অপব্যবহার করে এবং জালিয়াতি করে অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করেন। তিনি নিজেই গাড়িটি ব্যবহারকারী। এতে সরকারের ২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা শুল্ককর ফাঁকি হয়েছে।