‌ইন্টারনেট কৃষকের আয় মাসে ২ লাখ রুপি

0
25

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের এক কৃষক পরিবারে জন্ম দর্শন সিংহের। ছোটবেলা থেকেই তিনি পড়াশোনার পাশাপাশি চাষবাসে বাবাকে সহায়তা করতেন।

কৃষি তাই দর্শনের চেনাগন্ডিরই একটি বিষয়। সময়ের পরিক্রমায় নিজেও সেই পথ বেছে নেবেন তা ভাবেননি কখনো।

সেই দর্শন এখন শুধু নিজের গ্রামে নন, বলতে গেলে বিশ্বজুড়ে তারকা বনে গেছেন। অনেকেই তাকে ডাকেন বা চেনেন ‘ইন্টারনেট কৃষক’ হিসেবেও। কারণ, কৃষি বাদেও ইন্টারনেট থেকেই তার মাসিক আয় এখন দুই লাখ রুপির বেশি।

তার শুরুটাও খুব অবাক করার মতো। দর্শন পড়াশোনা শেষ করেন ২০১৫ সালে। চিন্তা ছিল চাকরি করে পরিবারের হাল ধরবেন। কিন্তু মাথায় তখন চাকরির চিন্তা সরে গিয়ে পারিবারিক জমিতে চাষের চিন্তা ঢুকে। বাবা-মাও সেই সঙ্গে চিন্তায় পড়ে যান, ছেলেকে পড়াশোনা করানোর পর কৃষক হবে?

শুরুতেই দর্শন নিজেদের ১২ একর জমিতে চাষের কাজ শুরু করেন। কিন্তু জমি চাষের ব্যাপারে কিছুটা জানলেও ফসল ফলাতে যে নানান ধাপ অতিক্রম করতে হয় সেসব তার ততটা জানা ছিল না।

সেসব জানতে গিয়েই দর্শনের মাথায় নতুন ভূত চাপে। তিনি যেসব কৃষকদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতেন সেগুলো স্মার্টফোনে ভিডিও করতেন। পরে সেগুলো নিজে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে সেখানে আপলোড দেন। পাশাপাশি নিজেও তা অনুসরণে কাজ করেন।

একটা সময় তিনি খেয়াল করলেন ধীরে ধীরে তার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়ছে। দর্শনের ইউটিউব চ্যানেল ‘ফার্মিং লিডার’-এর ফলোয়ার এখন ২২ লাখের বেশি। তা থেকে প্রতি মাসে দর্শনের আয় দুই লাখ রুপির বেশি।

২০১৭ সালে উপার্জন বাড়ানোর জন্য ডেয়ারি ফার্ম খোলেন। কিন্তু এই সংক্রান্ত কিছু প্রশিক্ষণ ছিল না। তাই ডেয়ারি ফার্মিং এবং অর্গানিক ফার্মিং সংক্রান্ত ইউটিউব ভিডিও দেখতে শুরু করেন। ভিডিও পছন্দ না হওয়ায় দর্শন কিছু ফার্মে নিজে যান এবং ভিডিও করে আনেন। সেগুলো নিজের চ্যানেলে আপলোড করেন।

একটা সময় দর্শন তার ভিডিও স্মার্টফোনে ধারণ করতেন। এখন ব্যবহার করেন দামি ডিএসএলআর ক্যামেরা। দর্শন এখন একা নন, তাকে সহায়তায় জন্য আরও দু’জন যুক্ত হয়েছেন সঙ্গে।

এখন তার চ্যানেলে ৫০০ ভিডিও রয়েছে। প্রতি সপ্তাহে অন্তত ১০টি করে ভিডিও পাবলিশ করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন দর্শন।