মন্ত্রীর কথায় মনে হয় এটা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ নয়

0
10

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা হাফেজ মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, হেফাজতের কথায় নয় বরং মন্ত্রীর কথায় মনে হয় এটা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ নয়। তার পুরো বক্তব্যেই স্বৈর‍াচারী ও ফ্যাসিবাদী মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এক বিবৃতিতে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী এসব কথা বলেন।

এর আগে শুক্রবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম (টিআইসি) মিলনায়তনে তীর্যক নাট্যদলের ‘নাট্যভাষা বাংলা আমার’ নাট্যায়োজনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেফাজতের কর্মকাণ্ড প্রসঙ্গে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেছিলেন, হেফাজত এমনভাবে বলছে মনে হয় এটি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ নয়, যেন ইসলামি প্রজাতন্ত্র বাংলাদেশ।

বিবৃতিতে জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, তিনি (মন্ত্রী) ৯০ ভাগ মুসলমানের ধর্মীয় বিশ্বাস ও ঈমান-আকিদার বিরুদ্ধে ফ্যাসিবাদী কায়দায় বিজাতীয় দর্শন ও মতবাদ চাপিয়ে দিতে চাচ্ছেন। তিনি প্রজাতান্ত্রিক শাসনে মানুষের প্রতিবাদ জানানোর ন্যায়সঙ্গত অধিকারকে অস্বীকার করেছেন।

আল্লামা বাবুনগরী হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, নাটক-সিনেমায় আপনি সফল অভিনেতা হতে পারেন, কিন্তু মুসলমানদের ঈমান-আকিদা ও ধর্মীয় আনুগত্য নিয়ে অভিনয় করা যায় না। ইসলাম ও ঈমান-আকিদা নিয়ে কটূক্তি করে মুসলমানদের মনে আঘাত দিয়ে তাদের বিক্ষুব্ধ করার চেষ্টা করবেন না।

হেফাজত মহাসচিব মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের ইসলামের আকিদা-বিশ্বাসের প্রতি কতটা আনুগত্য রয়েছে-সেই প্রশ্ন তুলে বলেন, গ্রিক দেবীর স্বপক্ষে তার ছাপাই বক্তব্যে এমন সন্দেহের জোরালো কারণ রয়েছে।

বিবৃতিতে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবির মূর্তি অপসারণের দাবিতে হেফাজতে ইসলামের পূর্ব ঘোষিত ঢাকার বায়তুল মোকাররম উত্তর গেট এবং চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা শাহি জামে মসজিদ চত্বরে শুক্রবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বাদ জুমা প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানান।

হেফাজত শুক্রবারের প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের অনুমতি নিয়েছে কিনা জানতে চাইলে নগর পুলিশের উপ কমিশনার (বিশেষ শাখা) মোখলেসুর রহমান জানান, হেফাজতে ইসলাম সমাবেশ ও মিছিলের ব্যাপারে একটি চিঠি দিয়েছে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিষয়ে। তবে এ ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। শুক্রবার আন্দরকিল্লা শাহি জামে মসজিদ এলাকায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হবে।