থানার ভেতরে যমুনা টিভির গাড়িতে হামলার অভিযোগ

0
778

চট্টগ্রামে আনোয়ারা থানার ভেতরে যমুনা টিভির অনুসন্ধানমূলক অনুষ্ঠান ‘৩৬০ ডিগ্রি’ টিমের গাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সিভিল পোশাকে কয়েকজন পুলিশ হামলায় অংশ নিয়েছে বলে টিমের সদস্যরা দাবি করলেও আনোয়ারা থানার ওসি বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

টিমের মূল প্রতিবেদক অপূর্ব আলাউদ্দিন বলেন, মামলা রেকর্ডের জন্য রিক্সাচালকের কাছ থেকে ঘুষ দাবি এবং মানবপাচার নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন তৈরির জন্য ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বক্তব্য নিতে দুপুরে ৩৬০ ডিগ্রি টিম আনোয়ারা থানায় যায়। টিমের সদস্যদের নেতৃত্বে আলাউদ্দিন অপূর্ব নিজেই ছিলেন। তার সঙ্গে আরও ছিলেন ক্যামেরাপার্সন কাজী ইসমাইল, চ্যানেল নাইনের ক্যামেরাপার্সন বিপ্লব মজুমদার এবং একজন সোর্স ও গাড়ির চালক।

থানায় পৌঁছার পর ওসি অনুপস্থিত দেখে তাকে ফোন দেন আলাউদ্দিন অপূর্ব। টেলিফোনে ওসি আব্দুল লতিফ তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। ওসি তাদের সঙ্গে দেখা করবেন না বলে জানালে ৩৬০ ডিগ্রি টিম সেখান থেকে চলে আসার উদ্যোগ নেয়।

এসময় থানার সেকেন্ড ‍টিমের সবার নাম-ঠিকানা লিখে রাখার জন্য অধ:স্তন কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। অপূর্ব নিজের ভিজিটিং কার্ড দেয়ার পরও সেকেন্ড অফিসার সবার নাম, স্থায়ী ঠিকানা লেখার জন্য চাপ দেন।

পুলিশের সঙ্গে বাকবিতন্ডার না জড়িয়ে টিমের সদস্যরা থানা থেকে বেরিয়ে গাড়িতে উঠে যান। গাড়ি রওনা দেয়ার পর সিভিল পোশাক পরিহিত সেকেন্ড অফিসারের নির্দেশে কয়েকজন এসে মূল গেইট বন্ধ করে দেয়। এরপর থানার কম্পাউন্ডের ভেতর থেকে তাদের বহনকারী মাইক্রোবাস লক্ষ্য করে পাথর আর ইটের টুকরা মারতে থাকে। এতে গাড়ির পেছন দিকের কাঁচ ভেঙে যায়। পিঠে ইটের টুকরা পড়ায় আঘাত পান ক্যামেরাপার্সন ইসমাইল। প্রায় ১৫ মিনিট পর গেইট খুলে দেয়া হয়। এরপর তারা শহরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আনোয়ারা থানার ওসি আব্দুল লতিফ বলেন, থানার ভেতরে সাংবাদিকের গাড়িতে হামলা করার প্রশ্নই উঠেনা। শুধু শুধু উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কোন অভিযোগ করলে তো হবেনা, সত্যতা থাকতে হবে। তাদের কোন অভিযোগ ‍থাকলে তারা আমার কাছে আসুক। তখন আসলেই তাদের গাড়িতে হামলা হয়েছে কিনা, হামলা করলেও কারা করেছে সেটা আমি তদন্ত করে দেখব।