দুর্নীতি প্রতিরোধে প্রতিবাদী র‌্যালী

0
5

মানুষ হয়রানির মধ্যে দুর্নীতি সীমাবদ্ধ নেই উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেছেন, দুর্নীতি বিভিন্ন মাত্রায় বিভিন্ন আকারে সমাজে প্রবেশ করেছে। দুর্নীতি প্রতিরোধে সবাইকে প্রতিবাদী হতে হবে।iuy

আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস উপলক্ষে বুধবার দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ ও মহানগর কমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সকালে এ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা নগরীর ডিসি হিল থেকে শুরু হয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুসলিম ইনস্টিটিউটে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও খ্যাতিমান সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন। শোভাযাত্রায় অংশ নেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন, দুদক বিভাগীয় পরিচালক আবদুল আজিজ ভুঁইয়া প্রমুখ।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সহসভাপতি মো. নাসির উদ্দিন চৌধুরী। এতে প্রধান অতিথির ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. খলিলুর রহমান। আলোচনায় অংশ নেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন, দুদক বিভাগীয় পরিচালক মো. আজিজুর রহমান ভূঁইয়া, উপপরিচালক মো. মোশাররফ হোসেন মৃধা, শাওন পান্থ প্রমুখ।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দুর্নীতিকে সামাজিক ব্যাধি উল্লেখ করে বলেন, সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে দুর্নীতি অনেকাংশে রোধ করা যায়। প্রত্যেকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে জোরালো প্রতিবাদ করলে দুর্নীতিবাজরা দুর্নীতি করতে সাহস পাবে না।

জেলা প্রশাসক বলেন, ভোগ্যপণ্যে ভেজাল মেশানো, নকল ওষুধ বিক্রি ও উৎপাদন করা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফরম পূরণ ও ভর্তির ক্ষেত্রে সরকারি নির্দেশ লংঘন করে অতিরিক্ত টাকা আদায়ও দুর্নীতি। যেখানে নীতি-নৈতিকতা শিক্ষা দেওয়া হবে সেখানে যদি দুর্নীতি করা হয়, তাহলে সমাজকে অবক্ষয়ের হাত থেকে রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়ে।