করোনা টিকা: হু সংশ্লিষ্ট বৈশ্বিক প্রকল্পে সামিল হবে না যুক্তরাষ্ট্র

0
51

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) টিকা আবিষ্কার ও বিতরণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টায় সামিল হবে না যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন জানিয়েছে, হু’র মতো বহুপক্ষীয় সংস্থার কারণে তাদের কার্যক্রম সীমিত করতে চায় না তারা। এজন্য, টিকা আবিষ্কারে একাই চেষ্টা চালাবে যুক্তরাষ্ট্র। এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা।
খবরে বলা হয়, গত জুলাইয়ে হু থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। আগামী বছর এ ঘোষণা কার্যকর হবে। ট্রাম্পের দাবি সংস্থাটি চীন দ্বারা প্রভাবিত ও এটির সংস্কার প্রয়োজন। এরপর হু’কে দোষারোপ করে করোনার টিকা আবিষ্কারের বৈশ্বিক প্রচেষ্টা থেকে দূরে সরে গেলো ট্রাম্প প্রশাসন।
বিশ্বজুড়ে এখন অবধি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আড়াই কোটির বেশি মানুষ।
মারা গেছেন ৮ লাখ ৫৭ হাজারের বেশি। এর প্রকোপ সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে যুক্তরাষ্ট্রেই। এখন অবধি বিশ্বজুড়ে ব্যবহারের জন্য কোনো টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়নি। তবে ক্লিনিকাল ট্রায়ালের শেষ ধাপে আছে বেশকিছু টিকা। এর মধ্যে কয়েকটির সঙ্গে আগেভাগেই চুক্তি করে রেখেছে ট্রাম্প প্রশাসন। তাদের মতো আরো কিছু দেশ এককভাবে টিকা নিশ্চিতে কাজ করছে। অন্যদিকে, বেশিরভাগ দেশই সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ভাইরাসটির প্রতিষেধক নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে। প্রায় ১৫০টি দেশ মিলে এ প্রচেষ্টার জন্য গঠিত হয়েছে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্লোবাল একসেস ফ্যাসিলিটি বা কোভ্যাক্স। কেননা, করোনা বিশ্বজুড়েই ছড়িয়ে পড়েছে। এর কোনো ভূতাত্ত্বিক সীমানা নেই।
হু’র সঙ্গে সমন্বয় করে গঠিত হয়েছে কোভ্যাক্স। এর আওতায় সম্ভাব্য টিকাগুলোর মধ্যে যেগুলো কার্যকর প্রমাণিত হবে সেগুলো নিয়ে কাজ করবে তারা। সদস্য রাষ্ট্রগুলোর নাগরিকদের জন্য টিকাগুলো নিশ্চিত করতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
হু জানিয়েছে, এককভাবে টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে চুক্তিকারী দেশগুলোও কোভ্যাক্সে যোগ দিয়ে লাভবান হতে পারবে। কারণ, তাদের চুক্তি করা টিকাগুলো কার্যকরী প্রমাণিত না হলে, কোভ্যাক্স থেকে বিকল্প টিকা পাবে তারা।
তবে হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জুড ডিরি মঙ্গলবার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক মিত্রদের সঙ্গে মিলে এই ভাইরাসকে পরাজিত করতে কাজ করবে। তবে চীন ও হু’র মতো দুর্নীতিগ্রস্থ সংস্থার প্রভাবে থাকা বহুপক্ষীয় সংস্থায় যোগ দিয়ে আটকা পড়বে না। তিনি বলেন, নতুন টিকাগুলো নিরাপত্তা ও কার্যকারিতার মান নিশ্চিত করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট কোনো খরচের কমতি রাখবেন না।