কাউখালী উপজলার বাবা ভান্ডারীর আস্তানা পাহাড়ী, বাঙ্গালীদের শেষ আশ্রয়র

0
149


শফিউল আলম, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ শত বৎসর পুর্ব মাইজভান্ডারী তরিকার প্রবত্বক ইমামুল আউলিয়া হজরত সয়দ  মাওলানা আহম্মদ উল্ল্যাহ মা্ইজভান্ডারীর ভ্রাতস্পুত্র ও প্রধান খলিফা হজরত মাওলানা গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারী পাবত্য চট্টগ্রামর কাউখালী উপজলার ফটিকছড়ি জগীখং গহিন অরন্য মহান আল্লাহুর নকট্য লাভর জন্য গভীর সাধনায় মগ ছিলন । গহিন অরণ্য হজরত গালামুর রহমান বাব ভান্ডারীর  গভীর ধ্যান মগ থক দীর্ঘ ১২ বৎসর এবাদত করন। ১২ বৎসর গাহন অরন্য পাহাড়র গুহায় রায়াজত করার সময় রাউজানর হলদিয়া ইউনিয়নর দুর্গম পাহাড়ী এলাকা বদ্বাবনপুর বট পুকুরিয়া এলাকায় হজরত গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারী অবস্ান করন । পরবর্তী ইমামুল আউলিয়া মাইজভান্ডারী ত্বরিকার প্রবত্বক হজরত সয়দ আহম্মদ উল্লাহ মাইজভান্ডারীর নির্দশ হজরত গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারীক রাউজানর হলদিয়া ইউনিয়নর দুর্গম পাহাড়ী এলাকা বদ্ববনপুর বট পুকুরিয়া থক পালকিত কর মাইজভান্ডার দরবার থক  পাঠানা লাকজন মাইজভান্ডার দরবার নিয় যায় । হজরত গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারীর রয়াজতর স্ান কাউখালী উপজলার ফটিকছড়ি জগীখং এলাকা এলাকার মানুষর কাছ পবিত্র স্ান হিসাব পরিচিতি হয় উঠ । সড়ক যাগাযাগ না থাকা সত্বও প্রতিদিন চট্টগ্রাম জলার বিভিন উপজলা ও চট্টগ্রম নগরী, দশর বিভিন এলাকা থক শত শত নারী পুরুষ  গাড়ী যাগ কাউখালী উপজলার পাড়া বাজার গিয় গাড়ী রখ হরিদ খালী খালর পানি দিয় তিন কিলামিটার দুর উজান হয় গহিন অরন্য বাবা ভান্ডারীর আস্তানায় গিয় জয়ারত কর তাদর মনাবাসনা পুর্ণ করন । প্রতিদিন বাবা ভান্ডারীর আস্তানায় দুর্গম পথ পায় হট পাহাড়ী বাঙ্গালী নারী পুরুষ দল বধ যায় । গহিন অরণ্য সরজমিন পরিদর্শন গিয় দখা যায় কাউখালী উপজলার পাড়া বাজার থক হরিদ খালী খালর উজান দিয় চট্টগ্রাম জলার বিভিন স্ান থক আসা নারী পুরুষ পায় হট আস্তানায় উপস্তি হয় য গুহা দিয় বাবা ভান্ডারী আসা যাওয়া করতা সই গুহা লাহার সিড়ি দিয় উঠ দখছন । আগত নারী পুরুষরা আস্তানা জয়ারত কর আস্তানার অদুর একটি স্ান বস খাওয়ারা রানা কর আহার করছন । গহিন অরন্য বাবা ভান্ডারীর আস্তানা জয়ারত কর আস্তানায় আসা লাকজন রাউজানর হলদিয়া ইউনিয়নর বটপুকুরিয়া এলাকায় গিয় হজরত গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারীর অপর আস্তানা ও মাইজভান্ডার দরবাবর খলিফা হজরত নজির আহম্মদ শাহ মাইজভান্ডারীর মাজার জয়ারত করন । গতকাল ১৩ ফব্রুয়ারী শনিবার সকাল রাউজানর প্রখ্যাত অলিয় কামল হজরত মুফতি অলিউল্ল্যাহ (রহঃ) ফাউন্ডশনর চয়ারম্যান মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদশ কদ্রীয় পরিষদর সদস্য কাজী মাওলানা হাবিবুর হাসাইন মাইজভান্ডারীর নতত্ব একটি দল গহিন অরণ্য বাবা ভান্ডারীর আস্তানায় উপস্তি হয় জয়ারত করন। পর দলটি বটপুকুরিয়া এলাকায় বাবা ভান্ডারীর আরা একটি আস্তানায় উপস্তি হয় জয়ারত করন ।রাউজানর প্রখ্যাত অলিয় কামল হজরত মুফতি অলিউল্ল্যাহ (রহঃ) ফাউন্ডশনর চয়ারম্যান মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদশ কদ্রীয় পরিষদর সদস্য কাজী মাওলানা হাবিবুল হাসাইন মাইজভান্ডারীর নতত্ব একটি দল গহিন অরণ্য বাবা ভান্ডারীর আস্তানায় জয়ারত করার সময় আরা উপস্তি ছিলন মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদশ রাউজান উপজলা সমস্বয়ক সাদিকজ্জমান সফি, রাউজান প্রস ক্লাবর সভাপতি শফিউল আলম, রাউজান খালাযাড় সমিতির সভাপতি সাখাওয়াত হাসন সকু. ব্যবসায়ী মনসুর, সাহল, দিদার। কাউখালী উপজলার ফটিকছড়ি জগীখং এলাকায় হজরত গালামুর রহমান বাবা ভান্ডারীর আস্তানা শরীফ গত ৫ বৎসর ধর খদমদগার হিসাব দায়িত্ব পালনকারী থায়াই মং সু মারমা বলন, আস্তানায় প্রতিদিন দশ ও চট্টগ্রামর বিভিন এলাকা থক