করোনার চিকিৎসায় নিঃস্ব হচ্ছে পরিবার, এটা সরকারের ব্যর্থতা

0
27

করোনায় একজন মানুষের মৃত্যু হচ্ছে, কিন্তু তার চিকিৎসা করাতে গিয়ে পুরো পরিবার নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে। এটাকে সরকারের ব্যর্থতা হিসেবে দেখছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ও প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ‘করোনা সংক্রমনের ভয়াবহতার প্রেক্ষাপটে করণীয়’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, করোনা জাতীয় জীবনে ভয়াবহতা সৃষ্টি করেছে। করোনায় একজন মানুষের মৃত্যু হয়, কিন্তু তার পুরো পরিবারকে হত্যা করছে সরকার। একটা আইসিউতে প্রতিদিনের খরচ ৩০ হাজার থেকে আড়াই লাখ টাকা। চিকিৎসা করাতে গিয়ে একটি পরিবার নিঃস্ব হয়ে যায়, এটা সরকারের ব্যর্থতা।

তিনি বলেন, আইসিইউর ওষুধের দাম খুব বেশি। একটি সিরিঞ্জের সুইয়ের ট্যাক্সও ৩১ শতাংশ। এই জিনিসগুলো পরিবর্তন করতে হবে। সকল ওষুধের মূল্য সরকার নিয়ন্ত্রণ করবে। তাহলে ওষুধের দাম বর্তমান দামের তুলনায় এক তৃতীয়াংশে নামিয়ে আনা সম্ভব। অক্সিজেনের উপরও ভ্যাট ১৯ শতাংশ। এদিকে, ভারতীয় কোম্পানি সময় মতো দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাক্সিন পাঠাচ্ছে না। কারণ তাদেরও চাহিদা বেশি। এজন্য সরকারকে নিজ দেশে ভ্যাক্সিন উৎপাদনে যেতে বলেছিলাম।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য দেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নূরুল হক নূর প্রমুখ।